(বাসস) রংপুর সিটি করপোরেশনের (রসিক) নবনির্বাচিত মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা ও ৪৪ জন কাউন্সিলর শপথ গ্রহণ করেছেন।

১৮ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে নিজ কার্যালয়ে মোস্তাফিজারকে শপথবাক্য পড়ান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর কাউন্সিলরদের শপথ পড়ান স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন (এলজিআরডি) ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। 

ওই সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এবং এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা

এলজিআরডি ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল মালেক শপথ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। মেয়রের পর নবনির্বাচিত ৩৩ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ১১ জন সংরক্ষিত মহিলা আসনের কাউন্সিলররাও অনুষ্ঠানে শপথ গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের স্থানীয় জনগণকে কাঙ্ক্ষিত সেবা প্রদানের আহ্বান জানান।

শপথ বাক্য পাঠ করছেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নব নির্বাচিত কাউন্সিলরা।

শপথবাক্য পাঠ করছেন রংপুর সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরা। ছবি: ফোকাস বাংলা

শেখ হাসিনা জানান, তার সরকার কেবল রংপুরকে সিটি করপোরেশন ঘোষণা করেনি, একে বিভাগ হিসেবে ঘোষণা করেছে এবং রংপুরের সার্বিক উন্নয়নে ব্যাপক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে।

উত্তরাঞ্চলে মঙ্গা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এ অঞ্চলে একদা মঙ্গা জনগণের দুঃখের কারণ থাকলেও বর্তমান সরকার এই মঙ্গাকে দূর করতে সক্ষম হয়েছে।’

গত ২১ ডিসেম্বর রংপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে লাঙল প্রতীকে ১ লাখ ৬০ হাজার ৪৮৯ ভোট পেয়ে জয়ী হন জাতীয় পার্টির রংপুর মহানগর সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা ।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু  নৌকা প্রতীকে ৬২ হাজার ৪০০ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় এবং বিএনপি মহানগর সহ-সভাপতি কাওছার জামান বাবলা ধানের শীষ প্রতীকে ৩৫ হাজার ১৩৬ ভোট পেয়ে তৃতীয় হন।

প্রিয় সংবাদ/শিরিন