সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

‘পদত্যাগপত্র পৌঁছালে আকাশে চাঁদ ওঠার মতো সবাই দেখবে’

ওবায়দুল কাদের বলেন, রাষ্ট্রপতির কাছে এখনো প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার পদত্যাগপত্র পৌঁছায়নি।

আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০১৭, ১৩:০৫ আপডেট: ১৮ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৩২
প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০১৭, ১৩:০৫ আপডেট: ১৮ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৩২


সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার পদত্যাগ প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘প্রধান বিচারপতি পদত্যাগ করেছেন কিনা তা এখনও নিশ্চিত নই। আমি যতটুকু জানি তিনি পদত্যাগপত্র পাঠালে মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠাবেন।’

১১ নভেম্বর শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) গুরুদুয়ারা নানকশাহীতে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির কাছে এখনো প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার পদত্যাগপত্র পৌঁছায়নি। পদত্যাগপত্র পৌঁছালে আকাশে চাঁদ ওঠার মতো আপনারাও জানতে পারবেন। আর আকাশে চাঁদ উঠলে সবাই দেখবে।’

এর আগে ১০ নভেম্বর শুক্রবার প্রধান বিচারপতির একমাসের ছুটি শেষ হওয়ায় শনিবার থেকে তিনি অনুপস্থিত বলে বিবেচিত হবেন বলে জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

প্রসঙ্গত, গত ২ অক্টোবর একমাসের ছুটি চেয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে চিঠি পাঠান প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা। আবেদনের দুইদিন পর ৪ অক্টোবর আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সংবাদকর্মীদের জানান, ‘বিচারপতি সিনহা অসুস্থ। তিনি নিজ বাড়িতে একজন চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন।’

সে সময় আইন মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, প্রধান বিচারপতি ছুটিতে থাকাকালীন ২ নভেম্বর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত অথবা তিনি ‘দায়িত্বে না ফেরা পর্যন্ত’ বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞা প্রধান বিচারপতির কার্যভার সম্পাদন করবেন।

গত ১৩ অক্টোবর রাতে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা অস্ট্রেলিয়ায় মেয়ের কাছে যান। অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগে ১৩ অক্টোবর রাতে সাংবাদিকদের এক বিবৃতি ধরিয়ে দেন। লিখিত বক্তব্যে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আমি সম্পূর্ণ সুস্থ আছি।’

গত ১৪ অক্টোবর শনিবার বিকেলে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়মসহ ১১ টি সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়ার পর তার সঙ্গে বিচারিক দায়িত্ব পালনে অপারগতা জানিয়েছেন অন্য বিচারপতিরা।

পরে সন্ধ্যায় হাইকোর্টে এক সংবাদ সম্মেলনে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, ‘বাস্তব পরিস্থিতি বিবেচনায় বিদেশ থেকে ফিরে এসে তার (প্রধান বিচারপতির) দায়িত্ব গ্রহণ করা সুদূর পরাহত।’

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...