(প্রিয়.কম) ভিয়েতনাম থেকে দ্বিতীয় চালানে ২৭ হাজার মেট্রিক টন চাল নিয়ে একটি জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরে এসে পৌঁছেছে। ১৭ জুলাই সোমবার এই চাল আসার পূর্বে ১৩ জুলাই বৃহস্পতিবার প্রথম চালানে ২০ হাজার মেট্রিক টন চাল নিয়ে একটি জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরে এসেছিল।

খাদ্য অধিদপ্তরের চলাচল ও সংরক্ষণ নিয়ন্ত্রক মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, ভিয়েতনাম থেকে আমদানি করা চালের দ্বিতীয় চালানে ২৭ হাজার মেট্রিক টন চাল নিয়ে ‘এমভি প্যাক্স’ নামের জাহাজ আজ সকালে চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে পৌঁছেছে। এর আগে প্রথম চালানে ২০ হাজার মেট্রিক টন চাল নিয়ে ‘ভিসাই ভিসিপি-০৫’ নামের জাহাজ গত বৃহস্পতিবার সকালে ওই বন্দরে আসে।

তিনি আরও জানান, প্রথম চালানে আসা ২০ হাজার মেট্রিক টন চাল খালাসের কাজ চলছে। প্রয়োজনীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে শিগগির দ্বিতীয় চালানে আসা চাল খালাস করা হবে।

জহিরুল ইসলাম জানান, সরকারি পর্যায়ে ভিয়েতনাম থেকে কেনা আড়াই লাখ চালের তৃতীয় চালান আগামী ২২ জুলাইয়ের মধ্যে বাংলাদেশে পৌঁছার কথা রয়েছে।

হাওরে অকাল বন্যায় ফসলের ক্ষতি এবং সরকারি গুদামের মজুদ কমে আসার প্রেক্ষাপটে সম্প্রতি ভিয়েতনাম থেকে ৯০৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকায় আড়াই লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি গত ১৪ জুন দরপত্র ছাড়াই সরকারি পর্যায়ে এই চাল আমদানির অনুমতি দেয়।

ভিয়েতনাম থেকে প্রতি মেট্রিক টন ৪৭০ মার্কিন ডলার দরে ৫০ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল কিনতে খরচ পড়ছে ১৯৫ কোটি ৫ লাখ টাকা। এ ছাড়া ৪৩০ মার্কিন ডলার দরে দুই লাখ মেট্রিক টন আতপ চাল আমদানিতে ৭১৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা খরচ হচ্ছে।

চুক্তি অনুযায়ী ভিয়েতনামের রাষ্ট্রায়ত্ত্ব কোম্পানি ভিনাফুড টু এই চালের ৬০ শতাংশ চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে এবং বাকি ৪০ শতাংশ মোংলা বন্দর দিয়ে সরবরাহ করবে।

প্রিয় বিজনেস/কামরুল