ছবি: সংগৃহীত

চালের বাজারে অস্থিরতা 

গুটি ও স্বর্ণার মতো মোটা চাল বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ৪৬ টাকা দরে। অথচ এক সপ্তাহ আগে এসব চালের দাম ছিল কেজিপ্রতি ৪৫ টাকা।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ৩১ মে ২০১৭, ১১:৫০ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০৬:১৬


ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) দেশের বাজারে গত এক সপ্তাহেই মোটা চালের দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি এক টাকা। ফলে ক্রমাগত চালের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় চালের দর নিয়ে অস্থিরতার সৃষ্টি হয়েছে। আর চুক্তির সময় বাড়িয়েও মিলারদের কাছ থেকে সন্তোষজনক সাড়া না পাওয়ায় এ অস্থিরতা আরও বাড়ছে। এখন পর্যন্ত ৪ হাজার ৮০০ মিলার চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ১৬ হাজারেরও বেশি।

খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ ইউনিটের তথ্য অনুযায়ী, মাঝারি ও মোটা চালের পাইকারি ও খুচরা উভয় মূল্যই বেড়েছে। গুটি ও স্বর্ণার মতো মোটা চাল বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ৪৬ টাকা দরে। অথচ এক সপ্তাহ আগে এসব চালের দাম ছিল কেজিপ্রতি ৪৫ টাকা।

এদিকে, সরকারের মজুদের অবস্থাও দিন দিনই নাজুক হচ্ছে। খাদ্যমন্ত্রী মো. কামরুল ইসলাম এ পরিস্থিতির জন্য গণমাধ্যম ও অসাধু ব্যবসায়ীদের দায়ী করেছেন। তার মতে, দেশে পর্যাপ্ত ধান চাল রয়েছে। কিন্তু মিডিয়ায় নেতিবাচক প্রচারণা ও অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে চালের বাজার অস্থির করে তুলেছে। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

খাদ্যমন্ত্রী মো. কামরুল ইসলাম জানান, মিডিয়া তিলকে তাল করে প্রচার করার কারণে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে। বোরোর দাম বাড়ালে বাজারেও এর প্রভাব পড়বে। চালের দাম আরও বাড়বে। এতে কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। তাই এ মুহূর্তে চালের দাম বাড়ানোর কোনো চিন্তাভাবনা সরকারের নেই। সরকার থেকে সরকার (জি টু জি) পর্যায়ে চাল আমদানির প্রক্রিয়া চলছে। সব মিলিয়ে এখনও যে চালের মজুদ রয়েছে তাতে আগামী দুই মাসে কোনো ধরনের সংকট হবে না।

২ মে থেকে সারাদেশে বোরো সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে। অভ্যন্তরীণ বাজার থেকে চাল সংগ্রহের এ অভিযান চলবে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত। ২৫ মে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সংগ্রহ হয়েছে ১ হাজার ২০৯ টন সিদ্ধ ও আতপ চাল। খাদ্য অধিদফতর সূত্র জানিয়েছে, সোমবার পর্যন্ত ৪ হাজার ৮০০ মিল মালিকের সঙ্গে ১ লাখ ৬৫ হাজার টন বোরো চাল সরবরাহের চুক্তি হয়েছে। তবে সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত বোরো চালের দাম পুনঃনির্ধারণ করার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

সূত্র: যুগান্তর 
প্রিয় সংবাদ/ইতি/শান্ত    

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জানুয়ারিতে খুলতে পারে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার
মোস্তফা ইমরুল কায়েস ২০ নভেম্বর ২০১৮
মাগুরায় বিষাক্ত মদপানে দুইজনের মৃত্যু
মো. ইমাম জাফর ২০ নভেম্বর ২০১৮
সরকারি হলো আরও ৪ মাধ্যমিক বিদ্যালয়
প্রিয় ডেস্ক ২০ নভেম্বর ২০১৮
প্রেমে বাধা দেওয়ায় ছাত্রীর মাকে হত্যা!
তাজুল ইসলাম পলাশ ২০ নভেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট