(প্রিয়.কম) রোহিঙ্গা সংকটের সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনগুলো রোহিঙ্গাদের জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ত করতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

১ নভেম্বর বুধবার রোহিঙ্গা পরিস্থিতির সার্বিক বিষয় তুলে ধরতে টিআইবি’র ধানমন্ডি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ আশঙ্কার কথা জানান সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। 

সংবাদ সম্মেলনে টিআইবি’র পক্ষ থেকে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে একটি প্রতিবেদন তুলে ধরেন তিনি। 

রোহিঙ্গারা চরম মানবেতর জীবনযাপন করছে, এজন্য ভারত ও চীনের মতো পরাশক্তিদের দায়ী করে ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, মিয়ানমার ভূ-রাজনৈতিক গুরুত্বের কারণেই রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নিধন চালিয়েছে। এটি গণহত্যা। ভারত ও চীন বাংলাদেশের ভালো বন্ধু। এ দুটি দেশকে বোঝানোর ব্যাপার বাংলাদেশের। মিয়ানমারের ওপর প্রয়োজনে সামরিকসহ সকল প্রকার নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি রাখে।

দ্রুত এ মানবিক সংকটের সমাধান আশা করে তিনি বলেন, শুধু ত্রাণকেন্দ্রিক কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করে এ সমস্যার সমাধান করা যাবে না। এটি একটি আন্তর্জাতিক সমস্যা। আন্তর্জাতিকভাবেই এ সমস্যার সমাধান করতে হবে। কূটনৈতিক চাপে এ সমস্যার সমাধানে বাংলাদেশ সামর্থ্য রাখে।

ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, সমস্যা দীর্ঘ মেয়াদি হলে, পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা না গেলে ক্যাম্পগুলোতে নানাবিদ অপরাধ এবং সহিংসতা বৃদ্ধি পাবে, যা ইতোমধ্যেই লক্ষণীয়। এ পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন স্বার্থান্বেষী মহল কর্তৃক নানাবিধ অপরাধে রোহিঙ্গাদের জড়িত করার ঝুঁকি রয়েছে।

প্রিয় সংবাদ/শান্ত