(প্রিয়.কম) স্প্যানিশ লা লিগায় গোল-খরায় ভুগছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো! অথচ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে উড়ছেন সিআর সেভেন। বুধবার বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষেও গোল করেছেন রিয়াল মাদ্রিদের এই পর্তুগীজ সুপারস্টার। আর তাতেই নতুন এক ইতিহাস গড়লেন তিনি। ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে টুর্নামেন্টের এক আসরে গ্রুপ পর্বের ছয় ম্যাচের সবকটিতেই প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠালেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

ম্যাচটা ছিল সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে। বরুসিয়া ডর্টুমন্ডের বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর ১২ মিনিটেই গোল করেন রোনালদো। কোনাকুনি শটে বল জালে পাঠিয়ে আরেকটি প্রথমে নাম লেখান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা।

চলতি মৌসুমে গ্রুপ পর্বের ছয় ম্যাচে এটা তার নবম গোল। বরুসিয়ার বিপক্ষে প্রথম দেখায় রোনালদো করেছিলেন জোড়া গোল। চলতি আসরে অ্যাপোয়েল নিকোশিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচেই করেন দুটি করে গোল। আর টটেনহ্যাম হটস্পারের বিপক্ষে দুই ম্যাচেই একবার করে বল পাঠান জালে।

বুধবার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বরুসিয়ার বিপক্ষে গোল করে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির একটি রেকর্ডও স্পর্শ করেন রোনালদো। গ্রুপ পর্বে সর্বোচ্চ ৬০ গোলের রেকর্ড ছিল মেসির দখলে। এবার সেখানে ভাগ বসালেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

রোনালদোর রেকর্ডের  রাতে রোমাঞ্চকর এক জয় পেয়েছে তার দল রিয়াল মাদ্রিদও। দুই গোলে পিছিয়ে থাকা বরুসিয়া ডর্টমুন্ড পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াংয়ের নৈপুণ্যে ফিরিয়েছিল সমতা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত লুকাস ভাসকুয়েজের গোলে জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে জিনেদিন জিদানের দল।

এই জয়ের ফলে ‘এইচ’ গ্রুপের রানার্সআপ হয়ে শেষ ষোলোয় ওঠা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ১৩। অন্যদিকে জার্মানির দল বরুসিয়ার সংগ্রহে পয়েন্ট মাত্র দুই। দিনের অন্য ম্যাচে অ্যাপোয়েল নিকোশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে টটেনহ্যাম হটস্পার। আগেই গ্রুপ সেরা নিশ্চিত হওয়া ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সেরা এই দলটির পয়েন্ট ১৬।

সূত্র: বিবিসি

প্রিয় স্পোর্টস/আশরাফ