(প্রিয়.কম) দুই নারী ভক্তকে ধর্ষণের দায়ে ২০ বছরের কারাদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত ভারতের বিতর্কিত ‘ধর্মগুরু’ গুরমিত সিং রাম রহিমেকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন বলিউডের আলোচিত ও সমালোচিত আইটেম গার্ল রাখি সাওয়ান্ত। কিন্তু রাম রহিমের পালিত কন্যা হানিপ্রীত তার স্বপ্নপূরণে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল বলে ভারতের একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন তিনি।  

সাক্ষাৎকারে রাখির দাবি, তিনি রাম রহিমের ঘনিষ্ঠ হতে চেয়েছিলেন। তবে হানিপ্রীত সেই জায়গা তাকে ছাড়েনি।

রাখির দাবি, প্রায় সাড়ে তিন বছরেরও বেশি সময় ধরে রাম রহিম ও তার পালিতা ‘কন্যা’ হানিপ্রীতকে চেনেন তিনি। রাম রহিমকে এতটাই কাছ থেকে চিনতেন, যে ধর্ষক বাবা সম্পর্কে তথ্য জানতে হলে তিনিই সবচেয়ে উপযুক্ত মানুষ। প্রকাশ্যে বাবা ও মেয়ের সম্পর্ক হিসেবে পরিচয় দিলেও, হানিপ্রীত ও রাম রহিমের সম্পর্ক যে আদৌ বাবা মেয়ের ছিল না তা আরও একবার মনে করিয়ে দিয়েছেন রাখি। তাদের মধ্যে কি সম্পর্ক তাও পরিস্কার জানেন বলে দাবি করেন তিনি।  

রাখি বলেন, রাম রহিমের জন্মদিনের নিমন্ত্রণে রাখি বিতর্কিত গুহাতেও গিয়েছিলেন। সেখানে তাকে একটি পানীয় খেতে দিলে সেটা খেয়ে নাকি তিনি অচেতন হয়ে পড়েছিলেন। রাম রহিম তার সাথে অভব্যতা করার উদ্দ্যেশেই এই পানীয় খাওয়ায় বলে দাবি তার। তবে হানিপ্রীত সেই ঘনিষ্ঠতা আটকায়। কারণ তাদের এই ঘনিষ্ঠতা মেনে নেয়নি হানিপ্রীত।     

রাখি আরও বলেছেন, তিনি যাতে হানিপ্রীতের সতীন না হয়ে উঠতে পারেন, তার জন্য সবরকম চেষ্টা করেছিল হানিপ্রীত। সে সময় রাম রহিমের নারী অনুসারীদের নির্যাতন ও পুরুষ অনুসারীদের খোজা করার বিষয়টি জানা ছিল না। তবে তিনি সব সময় নারীবেষ্টিত থাকতেন।

উল্লেখ্য, দুইজন ভক্তকে ধর্ষণের দায়ে ২০০২ সালে হওয়া মামলায় ২০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে তাকে। একইসঙ্গে ৩০ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। 

এর আগে ২৫ আগস্ট শুক্রবার দোষী সাব্যস্ত করে রায় দেওয়া হলে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় রাম রহিম সিংয়ের ভক্তরা। এতে প্রায় ৩৬ জন নিহত হয়

সূত্র: জি নিউজ 

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ