সার্জিও রামোসের এই ট্যাকলেই কাঁধে গুরুতর চোট পান মোহাম্মদ সালাহ। ছবি: সংগৃহীত

‘রোজা রাখেননি বলেই ইনজুরিতে পড়েছেন সালাহ’

ফিজিওথেরাপিস্টের পরামর্শে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের জন্য তিনদিন রোজা রাখেননি মিসরের এই তারকা ফুটবলার।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০১ জুন ২০১৮, ১১:৩৭ আপডেট: ১৮ আগস্ট ২০১৮, ০৮:৪৮
প্রকাশিত: ০১ জুন ২০১৮, ১১:৩৭ আপডেট: ১৮ আগস্ট ২০১৮, ০৮:৪৮


সার্জিও রামোসের এই ট্যাকলেই কাঁধে গুরুতর চোট পান মোহাম্মদ সালাহ। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল শেষ হওয়ার পর পেরিয়ে গেছে চারদিন। ওই ম্যাচে সার্জিও রামোসের করা ট্যাকলিংয়ে মোহাম্মদ সালাহ কাঁধে চোট পাওয়া নিয়ে আলোচনা তবু থামছে না। ওই ঘটনায় ফুটবল বোদ্ধা থেকে শুরু করে লিভারপুল ও মিসরের সমর্থকরা দুষছেন রিয়াল মাদ্রিদের অধিনায়ককে। যদিও রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক জানিয়েছেন, ওই ট্যাকলে তার কোনো দায় ছিল না।

তবুও রামোসের নামে মামলা হয়। আর এই ট্যাকলের নেপথ্যের ব্যক্তি হিসেবে দায়ী করা হয় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকেও। তিনিই নাকি ষড়যন্ত্র করে ইনজুরিতে ফেলেছেন, যেন সালাহ বিশ্বকাপ খেলতে না পারে। এবার জানা গেল, উপরোক্ত কোনো কিছুই নয়, বরং রোজা না রেখে খেলতে নামাই দায়ী সালাহর ইনজুরির জন্য।

স্কাই নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ফিজিওথেরাপিস্টের পরামর্শে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের জন্য তিনদিন রোজা রাখেননি মিসরের এই তারকা ফুটবলার। এর জন্যই সালাহকে আল্লাহ শাস্তি দিয়েছেন। তাই তিনি ইনজুরিতে পড়েছেন। মুবারক আল বাথালি নামের এক ইসলাম প্রচারক এমনই অভিযোগ তুলেছেন।

মুবারকের দাবি, রোজা না রেখে মাঠে নামাতেই আল্লাহ সালাহকে এমন শাস্তি দিয়েছেন। তার মতে, জিহাদিরা রোজা রেখে যুদ্ধে যেতে পারলে একজন খেলোয়াড় কেন পারবেন না? এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেওয়া এক টুইটে মুবারক লিখেছেন, ‘আল্লাহ তাকে শাস্তি দিয়েছেন। রোজা না রাখার জন্য খেলা কোনো যুক্তিই হতে পারে না।

জিহাদিরা রোজা রাখতে পারছেন। তবে ফুটবলাররা নয় কেন? জীবন কারণ বা চেষ্টা দ্বারা পরিচালিত হয় না। এর পেছনে উপরওয়ালার হাত থাকে। তিনি চাইলে সবকিছুই সম্ভব। অনুতাপের দরজা সবসময়ই খোলা। সম্ভবত এটাই (ইনজুরি) সালাহর জন্য ভালো হলো।’

সালাহর ইনজুরির নিয়ে সর্বশেষ জানা গেছে, তিন সপ্তাহের মধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠবেন সালাহ। এতে প্রথম দুই ম্যাচ মিস হলেও গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ঠিকই মিসরের জার্সিতে মাঠে দেখা যাবে লিভারপুলের এই তারকা ফরোয়ার্ডকে।

প্রিয় খেলা/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...