‘শনিবার বিকেল’ হোলি আর্টিজান থেকে ‘অনুপ্রাণিত’

‘নানা জনের নানা রকম স্পেকুলেশন আমরা দেখতে পাচ্ছি পত্রপত্রিকায় এবং সোশ্যাল মিডিয়ায়, সে কারণে আমরা এই বিষয়ে আমাদের বক্তব্য পরিষ্কার করতে চেয়েছি।’

মিঠু হালদার
নিজস্ব প্রতিবেদক
২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, সময় - ২২:২৫

‘শনিবার বিকেল’ বা ‘স্যাটারডে আফটারনুন’ ছবির ফার্স্ট লুক

(প্রিয়.কম) জনপ্রিয় নিমার্তা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী গত বছর যখন ‘স্যাটারডে আফটারনুন’ বা ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটি নির্মাণ করার ঘোষণা দিয়েছিলেন তখনই শোনা গিয়েছিল গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারির নারকীয় তাণ্ডব নিয়ে ছবিটি নির্মিত হবে। কিন্তু তখন বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেননি এ নির্মাতা।  এরই মধ্যে সিনেমার শুটিং শেষ করে ফেলেছেন। তাও কঠোর গোপনীয়তার মধ্য দিয়ে।

সম্প্রতি ফারকী সিনেমাটির শুটিং শেষ হওয়ার কথা জানালে বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ বাড়তে থাকে, গুঞ্জন জোরালো  হয়। অনেকে জোর গলায় এও বলতে লাগলেন, হোলি আর্টিজানে হামলার সেই ঘটনা নিয়েই ফারুকী এ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন। কিন্তু এত কিছুর পরও এ নির্মাতা মুখে কুলুপ এঁটে ছিলেন!

কিন্তু আজ ২১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় ফারুকী এ বিষয়ে মুখ খুললেন। তিনি প্রিয়.কমকে বলেন, ‘এটা হোলি আর্টিজান ঘটনা থেকে অনুপ্রাণিত, কিন্তু সেই ঘটনার হুবহু পুনর্নির্মাণ না। চরিত্রেরাও আলাদা।’

ফারুকী বলেন, ‘যদিও আমরা কখনোই চাইনি ছবি নিয়ে আগাম কোনো তথ্য জানাতে। কারণ ছবিতে যা আছে সেটা ছবি দেখতে গেলেই জানা যাবে। ছবির গল্প বা প্লট, এগুলো আগে বলা সিনেমার জন্য খুব স্বাস্থ্যকর না। যাই হোক, যেহেতু এসব নিয়ে নানা জনের নানা রকম স্পেকুলেশন আমরা দেখতে পাচ্ছি পত্রপত্রিকায় এবং সোশ্যাল মিডিয়ায়, সে কারণে আমরা এই বিষয়ে আমাদের বক্তব্য পরিষ্কার করতে চেয়েছি।’

‘শনিবার বিকেল’ বা ‘স্যাটারডে আফটারনুন’ ছবির ফার্স্ট লুক। ছবি: সংগৃহীত

তিনি আরো বলেন, ‘আজকে বার্লিন ফেস্টিভাল থেকে আমাদের জার্মান প্রযোজক আনা কাচকো’র সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে ভ্যারাইটি একটা এক্সক্লুসিভ রিপোর্ট করেছে। সঙ্গে প্রকাশ করেছে ছবির প্রথম স্থিরছবি। সেই সূত্র ধরে আমরাও প্রকাশ করছি ফার্স্ট লুক এবং আমাদের পরিষ্কার বক্তব্য, যাতে কোনো কানাঘুষার সুযোগ না থাকে।’

‘সিনেমার নাম কেন “শনিবার বিকেল”?’ এ প্রশ্নেরও উত্তর দিয়েছেন ফারুকী।

তিনি বলেন, ‘একটা শনিবার বিকেল, সুন্দর বিকেল, চমৎকার বিকেল, কী করে দুঃসহ ও বিভীষিকাময় হয়ে উঠল, তা-ই বলতে চেয়েছি। কিন্তু আমাদের গল্পটা শেষ পর্যন্ত বিভীষিকাময় থাকল না, আমাদের গল্পটা শেষ পর্যন্ত আশার।’

কথার শেষে সিনেমাটি নিয়ে ফারুকী তিনটি ফুটনোট জুড়ে দিয়েছেন। তা হলো-

১. শনিবার বিকেল একটা সিঙ্গল শট মুভি।

২. এটা একটা জিম্মি ঘটনা নিয়ে বানানো।

৩. এটা হোলি আর্টিজান ঘটনা থেকে অনুপ্রাণিত, কিন্তু সেই ঘটনার হুবহু পুনর্নির্মাণ না। চরিত্রেরাও আলাদা।

বাংলাদেশ-ভারত-জার্মান যৌথ প্রযোজনায় ‘শনিবার বিকেল’ ছবিটি জাজ মাল্টিমিডিয়া আর কলকাতার শ্যাম সুন্দর দে’র পাশাপাশি ছবিয়ালও প্রযোজনা করছে। সিনেমাটিতে সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে রয়েছেন আজিজ জাম্বাকিয়েভ।

‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটিতে জাহিদ হাসান, নুসরাত ইমরোজ তিশা ও ফিলিস্তিনের চলচ্চিত্র তারকা ইয়াদ হুরানি অভিনয় করেছেন। এ ছাড়াও রয়েছেন আরও কয়েকজন দেশি-বিদেশি অভিনেতা।

প্রিয় বিনোদন/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


স্পন্সরড কনটেন্ট
জনপ্রিয়
আরো পড়ুন