(প্রিয়.কম) ‘আমি ১৭ নভেম্বর ভোর চারটার দিকে থাইল্যান্ড থেকে ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের ‘মাস্ক’ ছবির শুটিং শেষ করে দেশে ফিরেছি। আর সেখান থেকে ফেরার আগে আব্রামের জন্য আমি বেশকিছু শপিং করেছি। আর সেগুলো নিয়েই আজ রাত আটটার দিকে অপুর নিকেতনের বাসায় যাই। যাওয়ার আগে আমি অপু ও তার সহকারীকে বেশ কয়েকবার ফোন দিই। কিন্তু কেউই ফোন ধরেননি। আর গিয়ে দেখি একজন সহকারীর কাছে জয়কে তালাবন্দী করে অপু কলকাতায় চলে গিয়েছেন। আমি বাড়ির বাইরে অপেক্ষা করছি।’ প্রিয়.কমের সঙ্গে আজ রাত সাড়ে ৯টার দিকে আলাপকালে কথাগুলো বললেন চিত্রনায়ক শাকিব খান।

সে সময় তিনি জানান, যেহেতু তালাবন্ধ করে গেছেন অপু, সেহেতু স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতায় তালা খোলার প্রক্রিয়া চলছে। ধরলাম জয়ের কোন কিছুই হবে না, কিন্তু যদি কোনো ধরনের ঝামেলা হয়, তাহলে এর দায়ভার কে নিবেন? বাড়িওয়ালাকে ফোন দেওয়া হয়েছে চাবি দিয়ে রুম খুলে দেওয়ার বিষয়ে। কিন্তু তিনি এ বিষয়ে সাড়া দিচ্ছেন না। 

এ বিষয়ে অপু বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে কোনো রকম সাড়া পাওয়া যায়নি। তবে অপু বিশ্বাসের দুইজন সহকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তারা কিছুই জানেন না বলে দাবি করেন প্রিয়.কমের এ প্রতিবেদকের কাছে। তারা দুজনই জানান, অপু বিশ্বাস গত বৃহস্পতিবার রাতে তার বাসায় পা পিছলে বাথরুমে পড়ে যান। এতে তিনি পায়ে এবং কোমরে আঘাত পান। যার কারণে আজ শুক্রবার সকালেই তিনি চিকিৎসার জন্য কলকাতা গেছেন। কিন্তু অপুর সঙ্গে কলকাতায় কে গিয়েছেন, তা জানা যায়নি।

কিন্তু অপু বিশ্বাসের ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাতে বাথরুমে পা পিছলে পড়ে গিয়ে অপুর সিজারের সময় করা সেলাই ফেটে ব্লিডিং হতে থাকে। পরে ঢাকার একটি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে শুক্রবার সকালে তিনি কলকাতায় যান। এরপর সেখানকার অ্যাপোলো হসপিটালে ভর্তি হয়েছেন তিনি।

এদিকে গত ৪ নভেম্বর প্রিয়.কমে খবর প্রকাশিত হয়, ‘শাকিব-অপুর বিচ্ছেদের গুঞ্জন’। তারপরই টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয় বিষয়টি। শোনা যাচ্ছে, শিগগিরই দেশিয় সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান আর নায়িকা অপু বিশ্বাসের নাকি আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটতে যাচ্ছে। এ খবর প্রকাশের পর থেকেই ভেঙে পড়েছেন অপু বিশ্বাস।

অপু বিশ্বাস ২০০৪ সালে আমজাদ হোসেনের ‘কাল সকালে’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। এরপর ২০০৬ সালে পরিচালক এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি। ২০০৬ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা এই জুটি একাধারে ৭০টির মতো ছবিতে জুটি বাঁধেন। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে একসময় পরস্পর প্রেমের বাঁধনে জড়িয়ে যান। এরপর ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন শাকিব-অপু। তাদের একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়।

 

প্রিয় বিনোদন/শামীমা সীমা