শুরু হচ্ছে ডিরেক্টরস গিল্ড টেলিভিশন অনুষ্ঠান নির্মাণ প্রশিক্ষণ

ডিরেক্টরস গিল্ড কর্তৃক পরিচালিত তিন মাসের এ ফিল্ম অ্যাপ্রিসিয়েশন কোর্স আগামী পহেলা জানয়ারি থেকে মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

শিবলী আহমেদ
সহ-সম্পাদক
৩০ ডিসেম্বর ২০১৭, সময় - ২০:০৫

ডিরেক্টর গিল্ডের সংবাদ সম্মেলন। ছবি: সংগৃহীত।

(প্রিয়.কম) এ মুহুর্তে প্রচার মাধ্যমগুলোর মধ্যে সব চাইতে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন মাধ্যম। চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অনুষ্ঠান নির্মাণ পদ্ধতি ও কৌশলগত’ দিকগুলো প্রায় অভিন্ন। সেহেতু এ বিষয়ে মোটামুটি স্বচ্ছ ধারণা প্রাপ্তি পর অডিও-ভিজ্যুয়াল মাধ্যমের বাস্তবিক অবস্থার একটি পরিষ্কার উপলব্ধি জন্মে। আমাদের প্রচেষ্টা হবে অডিও-ভিজ্যুয়াল মাধ্যম এবং এর ব্যবহারিক দিক সম্পর্কে তিন মাসের একটি ফিল্ম অ্যাপ্রিসিয়েশন কোর্সের মোট ৬৫টি লেকচার, প্রাকটিক্যাল ক্লাস ও নাটক-চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থীদের আগ্রহ বৃদ্ধির পাশাপাশি বিষয়গত জ্ঞান প্রদান করা। এই কোর্সের পর যে কেউ, বিশেষ করে তরুণেরা আরও বিস্তারিত ও বিশেষ কোনো ক্ষেত্রে জ্ঞান লাভ করতে চাইলে তখন তার জন্যে একটি অ্যাডভান্স অথবা ডিপ্লোমা কোর্স সফলভাবে সমাপ্ত করা সহজ হয় এবং এ মাধ্যমে তিনি একজন পেশাদার হিসাবে নিজেকে নিয়োজিত করতে সক্ষম হতে পারে।

ডিরেক্টরস গিল্ড কর্তৃক পরিচালিত তিন মাসের এ ফিল্ম অ্যাপ্রিসিয়েশন কোর্স আগামী পহেলা জানয়ারি থেকে মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। বর্তমানে পরিচালক বা কোনো প্রোডাকশন হাউজে কর্মরত অথবা অন্য কোনো পেশায় কর্মরতদের সুবিধার্থে সপ্তাহের প্রতি বৃহস্পতিবার দিনের দ্বিতীয়ার্ধে এবং শুক্র ও শনিবার সকাল দশটা থেকে সন্ধ্যা অবধি ক্লাসের সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রতিজন প্রার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতা ন্যূনতম পক্ষে উচ্চমাধ্যমিক হওয়া বাঞ্ছনীয়। অডিও ভিজ্যুয়াল মাধ্যমে যারা কর্মরত তাদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল থাকবে। চুড়ান্ত নির্বাচনের জন্য ভর্তি ইচ্ছুক সকলকে মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। প্রতি কোর্সে সর্বোচ্চ ৩০ জন ছাত্র নেওয়া হবে।

যারা সফলতার সঙ্গে প্রশিক্ষণ কোসর্টি সম্পূর্ন করবেন তাদের ডিরেক্টারস গিল্ডের গঠন তন্ত্র অনুযায়ী ডিরেক্টরস গিল্ড এর সদস্য পদ দেওয়া হবে। এছাড়াও সেরা পাঁচজন প্রশিক্ষনার্থীকে নিয়ে পাঁচটি একঘণ্টার কাহিনিচিত্র নির্মাণ করে স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার করা হবে। প্রশিক্ষন কোর্সে যারা প্রশিক্ষক হিসাবে থাকবেন  তারা হলেন, মুস্তাফা মনোয়ার, নওয়াজিশ আলী খান, হায়দার রিজভি, সাইদুল আনাম টুটুল, তানভীর মোকাম্মেল, মানজারে হাসিন মুরাদ, পঙ্কজ পালিত, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, গীতিয়ারা সাফিয়া চৌধুরী, কেরামত আলী, রতন পাল, জাহিদুর রহিম অঞ্জন, রাশেদ জামান, সামির আহমেদ, অমিতাভ রেজা চৌধুরী, ইমন সাহা, আমজাদ হোসেন, মামুনূর রশীদ, মসিহউদ্দিন শাকের , আজাদ রহমান, মোরশেদুল ইসলাম, অনুপম হায়াত, উত্তম গুহ, সালাহউদ্দীন লাভলু, গাজী রাকায়েত, মোহাম্মদ হোসেন জেমী, মোস্তফা সারয়ার ফারুকী, নূরুল আলম অতিক, তৌকির আহমেদ, গিয়াস উদ্দীন সেলিম, এস এ হক অলিকঅনিমেষ আইচ

প্রিয় বিনোদন/শামীমা সীমা

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


স্পন্সরড কনটেন্ট
জনপ্রিয়
আরো পড়ুন