রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধের দাবিতে শেরপুরে মানববন্ধন

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞের ঘটনায় অং সান সুচির ভূমিকার সমালোচনা করে তার নোবেল শান্তি পদক প্রত্যাহারসহ রোহিঙ্গাদের উপর গণহত্যা ও গণধর্ষণ বন্ধে জাতিসংঘের সক্রিয় হস্তক্ষেপের দাবিও জানানো হয় মানববন্ধনে।

সানী ইসলাম
কন্ট্রিবিউটর, শেরপুর
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, সময় - ১৫:২৯

রোহিঙ্গাদের উপর গণহত্যা ও নির্যাতন বন্ধের দাবিতে শেরপুরে মানববন্ধন। ছবি: প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতনের প্রতিবাদে শেরপুরের ঝিনাগাতীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে জাতীয় সমাজতন্ত্রিক দল (জাসদ)'র উপজেলা শাখার আয়োজনে মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সন্মুখে এ মানববন্ধব অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা অবিলম্বে রোহিঙ্গাদের জন্মভূমি রাখাইন প্রদেশে তাদের প্রত্যাবাসনের জন্য মিয়ানমারের সরকারের প্রতি আহবান জানান।

সেই সাথে তারা মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞের ঘটনায় অং সান সুচির ভূমিকার সমালোচনা করে তার নোবেল শান্তি পদক প্রত্যাহারসহ রোহিঙ্গাদের উপর গণহত্যা ও গণধর্ষণ বন্ধে জাতিসংঘের সক্রিয় হস্তক্ষেপের দাবিও জানান।

মানববন্ধনে উপজেলা জাসদের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজানের সভাপতিত্বে উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক একেএম ছামেদুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শহিদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

প্রসঙ্গত, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে গত ২৫ আগস্ট থেকে নতুন করে সেনা অভিযান শুরু হয়। এ অভিযানে এখন পর্যন্ত ৪০০ জনকে হত্যা এবং ২৬০০ ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার কথা শিকার করেছে দেশটির সেনাবাহিনী।

জাতিসংঘ বলছে, অক্টোবরের পর এ পর্যন্ত সব মিলিয়ে প্রায় দেড় লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকেছে। প্রতিদিনই এ সংখ্যা বাড়ছে। ‘গত দুই সপ্তাহে প্রায় ২ লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে’ করে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর’র।

এর আগে, জাতিগত দ্বন্দ্বের জেরে ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে দেশটির সেনাবাহিনীর চালানো একই রকম অভিযানে কয়েকশত রোহিঙ্গা নিহত হয়। ওই অভিযানের বর্বরতায় বাধ্য হয়ে অন্তত ৮০ হাজার রোহিঙ্গা পার্শ্ববর্তী বাংলাদেশে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় গ্রহণ করে।

প্রিয় সংবাদ/শিরিন

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জনপ্রিয়