(প্রিয়.কম) গত মঙ্গলবার সংসদে জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণ শেষে বেরিয়ে যাচ্ছিলেন মিয়ানমার স্টেট কাউন্সিলর ও ক্ষমতাসীন দলেরর নেত্রী অং সান সুচি। সে সময় বিবিসির সাংবাদিক জোনাহ ফিশার তাকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে প্রশ্ন করেছিলেন। তবে প্রশ্ন শুনতে পেলেও কোন ধরণের উত্তর না দিয়েই বেরিয়ে যান তিনি।

বিবিসি’র প্রকাশ করা ভিডিওতে বলা হয়েছে, পার্লামেন্টে দেওয়া আধাঘন্টার ভাষণে ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি উচ্চারণ না করে রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার কথা বলেন।

তিনি বেরিয়ে যাওয়ার সময় জোনাহ ফিশার তাকে প্রশ্ন করেন, রাখাইনে ‘জাতিগত নিধনের’ জন্য তিনি ক্ষমা চাইবেন কীনা। এই প্রশ্নের জবাব না দেওয়ায় সাংবাদিক আবারও প্রশ্ন করেন, আপনার কী কিছু বলার আছে? এবারও নিরব তিনি। সাংবাদিক আবারও প্রশ্ন করেন, পালিয়ে যাওয়া মানুষদের কী হবে? আবারও নিরব সু চি সহযোগী পরিবেষ্টিত হয়ে বেরিয়ে যান।

নিরাপত্তা চৌকিতে বিদ্রোহীদের হামলার পর মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। ২৫ আগস্ট ওই আভিযান শুরুর পর চার লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা ওই এলাকা থকে পালিয়ে বাংলাদেশে চলে আসতে বাধ্য হয়েছেন। জাতিসংঘ এই অভিযানকে জাতিগত নিধন বলে অভিহিত করলেও এতদিন চুপ ছিল মিয়ানমার।

দেখে নেওয়া যাক সেই ভিডিওটি: