(প্রিয়.কম) অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ টেস্ট সিরিজের অংশ হিসেবে চট্টগ্রামে সাতদিনের ট্রেনিং ক্যাম্প করেছে মুশফিক রহিমের দল। সেখানেই এক ভয়ংকর দুর্ঘটনার শিকার হন তামিম ইকবাল। শনিবার চট্টগ্রাম থেকে দলের সঙ্গে বাঁ-হাতি এই ওপেনার ঢাকায় ফিরেছেন পেটে চারটি সেলাই নিয়ে।

ঘটনাটি বৃহস্পতিবারের। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজ সামনে রেখে নিজেরদের মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছিলেন তামিম-মুশফিকরা। সেই ম্যাচের দ্বিতীয় দিন ২৯ রানে আউট হয়ে যান তামিম। ফেরার সময় হতাশা থেকেই দরজার কাঁচে ব্যাট দিয়ে বাড়ি দেন বাঁ-হাতি এই ওপেনার। তাতে সামান্য ভেঙে যায় কাঁচ।

এরপর ড্রেসিংরুমে ঢোকার সময় ঘটে বড় রকমের সেই দুর্ঘটনাটি। কাঁচের পুরো দরজাটাই ভেঙে পড়ে তামিমের উপর। ভারসাম্য হারিয়ে তামিম নিজেও পড়ে যান সেই কাঁচের উপর। মাথায় হেলমেট আর পায়ে প্যাড থাকায় বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে বাঁচলেও ভাঙা কাঁচের টুকরো পেটে ঢুকে যায় তামিমের। তাতে দিতে হয়েছে চারটি সেলাই।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে দেশের শীর্ষ এক দৈনিককে তামিম বলেন, ‘দরজাটা ধাক্কা দেওয়া মাত্র কাঁচ ভেঙে আমার গায়ের ওপর পড়ল। আমিও মাটিতে পড়ে গেলাম। আমার প্যাডগুলো দেখলে বুঝতে পারতেন কত ভয়ংকর ছিল সেটা। প্যাড না থাকলে এর চেয়েও খারাপ কিছুও হতে পারত।’

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অন্তত পাঁচদিন বিশ্রামে থাকতে। আজ-কালের মধ্যেই সেলাই কাঁটা হবে দেশসেরা এই ওপেনারের। এরপরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, কবে ফিরবেন অনুশীলনে।

প্রিয় স্পোর্টস/ সামিউল