বাংলাদেশ বনাম আফগানিস্তান ম্যাচের একটি মুহূর্ত। ছবি: সংগৃহীত

সাকিবদের অশনি সংকেতের নাম ‘মানসিক অস্বস্তি’

বাংলাদেশ হারল, সঙ্গে শুরু হলো সমালোচনা। কথায় আছে, ‘হাতি পাকে পড়লে, ব্যাঙও লাথি মারে’।

সামিউল ইসলাম শোভন
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫ জুন ২০১৮, ১৮:৪৫ আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ২২:১৭
প্রকাশিত: ০৫ জুন ২০১৮, ১৮:৪৫ আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ২২:১৭


বাংলাদেশ বনাম আফগানিস্তান ম্যাচের একটি মুহূর্ত। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ক্রিকেট ম্যাচে হার-জিত থাকবে, সেটা স্বাভাবিক। খুব বাজে খেলে, নিজেদের চেয়ে দুর্বল দলের কাছে হার; এগুলোও অস্বাভাবিক নয়। কিন্তু নিজেদের চেয়ে দুর্বল দলের বিপক্ষে সিরিজ শুরুর আগেই যখন ‘জুজুবুড়ি’ ধরিয়ে দেওয়া হয়, তারই ধারাবাহিক দলের সামনে যখন নাকেমুখে জল করে হারতেও হয়; তখন দুর্ভাবনা নয়, ভয় ধরে যাওয়ার কথা। বাংলাদেশের ড্রেসিংরুমে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ হারের পর সেটাই হয়েছে। আর এই অশনি সংকেতের ভয়টা মানসিক অস্বস্তির।

দেরাদুনে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ দল। প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। ওয়ানডে-টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে দলটি বাংলাদেশের ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকলেও এই ২০ ওভারের ফরম্যাটে ছড়ি ঘোরাচ্ছে তারাই। ৩ মে যখন সিরিজের প্রথম ম্যাচ খেলা হলো, তখন সেই প্রমাণও দিলো আফগানরা।

বাংলাদেশ হারল, সঙ্গে শুরু হলো সমালোচনা। কথায় আছে, ‘হাতি পাকে পড়লে, ব্যাঙও লাথি মারে’। সাকিব আল হাসান-তামিম ইকবালদের অবস্থাটা অনেকটা এমনই হয়েছে। একে তো বাড়তি প্রত্যাশার চাপের ওপর হার, সঙ্গে আবার মাঠের পারফরম্যান্স এমনকি মাঠের বাইরের কিছু ঘটনা নিয়েও বিতর্ক, যেখানে ক্রিকেটারদের কোনো দায় নেই। সবমিলিয়ে বাংলাদেশ দল মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। সেসব মাথায় নিয়েই আজ মঙ্গলবার রাতে মাঠে নামতে হচ্ছে তাদেরকে।

অবশ্য এই মানসিক অস্বস্তিটাই পুড়িয়ে মারতে পারে আজও; এমন ভাবনা দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনের। তার মতে, এত সুযোগ-সুবিধা, অনুশীলনের পরও যখন মাঠের পারফরম্যান্সে বেগতিক হতে হয়; তখন বিপদে পড়া লাগে। তার দাবি, বাংলাদেশ দল আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মানসিকভাবে ভঙ্গুর।

সুজন বলেন, ‘আমরা ছেলেদের নিয়ে খুব হতাশ। এত অনুশীলন করানো হয়, এত কিছু হয়। তবুও তারা কেন মাঠে এসে করে দেখাতে পারে না, তা আমার জানা নেই। আমার কাছে যেটা মনে হয়েছে, সততার সঙ্গে যদি বলি, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলোয়াড়েরা মানসিকভাবে শক্ত নয়।’

কথা যতই হোক, দলকে খেলতে হবে মাঠে। বাংলাদেশ দল ঘুরে দাঁড়াতে পারবে কি না, সেটার প্রমাণও মিলবে খেলা শেষে। সাকিব-তামিমদের থেকে দলের তরুণ ক্রিকেটাররা কতটা নিতে পারছেন, সেটার দিকেও মন দিতে হচ্ছে।

টিম ম্যানেজমেন্টও ভাবছে পুরো বিষয় নিয়ে। প্রথম ম্যাচের পর তাই এই ম্যাচের একাদশে আসতে যাচ্ছে বড় পরিবর্তন। দ্বিতীয় ম্যাচটি একই ভেন্যুতে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হবে।

প্রিয় খেলা/শান্ত  

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

আহা, জয় এত মধুর!

প্রিয় ২ দিন, ৩ ঘণ্টা আগে

loading ...