(প্রিয়.কম, সিলেট থেকে) ঘরের মাঠে সব দলই কঠিন প্রতিপক্ষ। চেনা সমর্থকদের সামনে বুক চিতিয়ে লড়েন সব স্বাগতিক দলের ক্রিকেটারই। গত কয়েক বছর দেশের মাটিতে রাজত্ব করেছে বাংলাদেশও। ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকার পর সর্বশেষ বাংলাদেশের শিকারে পরিণত হয়েছে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু যে ঘরের মাঠ দিয়ে শক্তিশালী দলের ট্যাগ গায়ে তুলেছে বাংলাদেশ, সেই ঘরের মাঠই নাকি অচেনা লাগছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাসের কাছে!

লম্বা সফর ছিল। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে প্রায় দেড় মাস থাকতে হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। দীর্ঘ সফর শেষ করে দেশে ফিরেও বিশ্রাম মেলেনি তাদের। ফিরেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন সব ক্রিকেটার। এ পথে কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিতে নাকি কঠিন হচ্ছে ক্রিকেটারদের! এতদিন বাইরের থাকার পর দেশের কন্ডিশনও কঠিন মনে হচ্ছে লিটন কুমার দাসের কাছে!

সোমবার সিলেটের জেলা স্টেডিয়ামে অনুশীলনের ফাঁকে এমনই জানালেন কমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে খেলা জাতীয় দলের এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। বলছেন, ‘এখানে কন্ডিশনটা পুরোপুরি আলাদা। অ্যাডজাস্ট হতে একটু সময় লাগবে। অনেকদিনের একটা ট্যুর করে এসেছি আমরা।’ যেখানে জন্ম, বেড়ে ওঠা, ক্রিকেটের সাথে পরিচিত হওয়া- সেই দেশের কন্ডিশনই কঠিন মনে হচ্ছে এটা শুনে সবাই অবাকই হবেন হয়তো। 

লিটনের এমন উত্তর সাংবাদিকদেরও অবাক করেছে। যে কারণে পরের পশ্ন- দেশের কন্ডিশনও আলাদা মনে হচ্ছে আপনার কাছে? এবারও অনেকটা আগের মতো করেই উত্তর দিলেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান, ‘অনেকদিন ধরে আমরা অন্য উইকেটে খেলে এসেছি। আবার এসে অ্যাডজাস্ট করা একটু হলেও টাফ। মনে হচ্ছে উইকেট একটু স্লো আচরণ করছে। যে কারণে একটু হলেও সমস্যা হচ্ছে।’

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে চার নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে বিপিএল। পাঁচ নভেম্বর নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে মাঠে নামে কুমিল্লা। কিন্তু আসরের শুরুটা ভাল হয়নি তাদের। সিলেট সিক্সার্সের কাছে চার উইকেটে হেরে যায় ২০১৫ আসরের চ্যাম্পিয়নরা। তবে এ হার নিয়ে চিন্তিত নন লিটন। বললেন, ‘অবস্থা ভাল। এমন কোনও চিন্তা নেই যে হার বা কোনও কিছু্। জিতলে ভাল হতো। তবে আমরা এখন খুব ভাল অবস্থায় আছি।’

বিপিএলের গত আসরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স সুবিধা করতে পারেনি। এবার হারে শুরু। ভাল কিছু করতে না পারলে দল থেকে ছিটকে পড়তে পারেন। এটা চাপের কি না? এমন পশ্নে যেন কিছুটা রেগেই গেলেন লিটন, ‘গতবার নিয়ে চিন্তা করে লাভ আছে? নতুন সিরিজ, নতুনভাবে চিন্তা করছি। গতবারের জিনিস ধরে রেখে তো লাভ নেই, এক বছর আগে কী হয়েছে না হয়েছে সেটা দিয়ে কী? খেলা আছে কাল, কাল দেখা যাবে।’