অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী। ছবি: শামছুল হক রিপন; প্রিয়.কম

শুটিং বাড়িতে ৩০ মিনিটের মেহজাবিন...

পরনে মিষ্টি গোলাপি শাড়ি, তাতে সাদা রঙের কলকা। সেই পরিচিত মুখ, পর্দায় যার অভিনয় শৈলী দর্শকদের মোহিত করে রাখে।

শিবলী আহমেদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০১ মার্চ ২০১৮, ১৩:৪০
আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২২:০০


অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী। ছবি: শামছুল হক রিপন; প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) উত্তরার বেশ কিছু শুটিং বাড়ির মধ্যে আনন্দবাড়ি একটি। পেঁচিয়ে ওঠা সিঁড়িগুলো চলে গিয়েছে তিন তলার ছাদ পর্যন্ত। মধ্যদুপুরে সেখানে শুটিং চলছিল লুৎফর রহমান সোহেলের পরিচালনায় ‘অমৃত কথা’ নাটকের। তারিখ ছিল ফাল্গুনের ১০। রোদের তীব্রতা খুব বেশি নয়, তবে বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকলে মাথা ধরে। ছাদের উপর বেড়ে ওঠা মাঝারি আকারের আমগাছে ধরা এক ঝোপা মুকুলের নিচে দাঁড়িয়ে শট দিচ্ছিলেন অভিনেতা ইরফান সাজ্জাদ। মনিটরে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিলেন পরিচালক সোহেল। শট শেষে ছুটে এলেন প্রিয়.কমের দুই সদস্য বিশিষ্ট দলের সামনে।

এ নাটকে মেহজাবিন চৌধুরীর অভিনয় করার কথা। তিনি আসবেন দুপুর দুটার পর, ঘড়ির দিকে তাকিয়ে এ বিষয়ে আশ্বস্ত করলেন পরিচালক। দুটা বাজতে বেশিক্ষণ বাকি ছিল না অবশ্য। সময়মতো চলে এলেন মেহজাবিন। পরনে মিষ্টি গোলাপি শাড়ি, তাতে সাদা রঙের কলকা। সেই পরিচিত মুখ, পর্দায় যার অভিনয় শৈলী দর্শকদের মোহিত করে রাখে। গত বছরের বহুল আলোচিত ‘বড় ছেলে’ নাটকের অভিনেত্রী তিনি। এছাড়াও ‘বেকার’ নাটকে অভিনয় করে নিজেকে তুলে ধরেছেন আরেকধাপ উচ্চে। এখনো অভিনয় করে যাচ্ছেন একের পর এক নাটকে। ব্যস্ততার ছাপ তার চেহারায় স্পষ্ট হয়ে আছে। তবে মুখের হাসির পেছনে সেই ব্যস্ততার ছাপ উবে যায়। মনে হয়, কোনো ক্লান্তিই যেন নেই।

আনন্দবাড়ির দোতলার বেলকনি ঘেঁষে রাখা একটি সোফায় জিরিয়ে নিলেন কিছুক্ষণ। রোদ ভেঙে এসেছেন তাই গলা ভিজিয়ে নিতে দুঢোঁক পানি পান করে কুশলাদি বিনিময় করলেন প্রিয়.কমের সাংবাদিকদ্বয়ের সঙ্গে। কিছু ছবি তুলে নেওয়া যাক। ফটোগ্রাফারের প্রস্তাবে ভ্রু না কুঁচকে লক্ষ্মী মেয়েটির মতো উঠে এলেন। বেলকনিতে দাঁড়ালেন, মুখে মিষ্টি একটা হাসি নিয়ে। সেখানে বাগান বিলাসী ফুলের সঙ্গে তার শাড়ির রঙ মিলেমিশে একাকার। বেলা আড়াইটার সময় শুরু হলো প্রিয়.কমের সঙ্গে অভিনেত্রী মেহেজাবিনের ৩০ মিনিটের সাক্ষাৎ।

ঝুমকো কানে সদা প্রফুল্ল এক অভিনেত্ত্রি মেহজাবিন চৌধুরী। ছবি: শামছুল হক রিপন; প্রিয়.কম

ছবি পর্ব শেষ করে আবার সোফায় ফিরে আসা পর্যন্ত কেটে গেল ঠিক ২০ মিনিট। বারান্দার দরজা খুলে দেওয়ায় সোফায় মৃদু বাতাস বয়ে যাচ্ছিল। সে বাতাসে ক্ষণে ক্ষণে দুলছিল মেহজাবিনের এক গোছা চুল। এমন আবহে পাশাপাশি বসে পুনরায় কথা হলো মেহজাবিনের সঙ্গে। প্রথম কথাতেই কিছুটা হচকে দিলেন তিনি। বললেন, ‘অমৃত কথা নাটকে আমার কোনো ডায়ালগ নেই। আমি বোবা।’ অবশ্য এ রহস্য বেশিক্ষণ ধরে রাখলেন না, মৃদু হেসে বললেন, ‘সাইন ল্যাঙ্গুয়েজে আমার অনেক কাজ আছে নাটকে। বোবা চরিত্রে অভিনয় করছি তো, তাই। যারা কথা বলতে পারে না, তারা তো সাইন ল্যাঙ্গুয়েজেই যোগাযোগ করে।’

একটি বোবা মেয়েকে ভালোবেসে ফেলে একটি ছেলে। বোবা মেয়েটিকে জীবনসঙ্গী করতে চায় ছেলেটি। কিন্তু আমাদের সমাজে এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিলে অনেক ধরনের প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয়। সে সব বাধা এড়িয়ে যাওয়ার জন্য চ্যালেঞ্জ নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হয়। এমন সিদ্ধান্তে সামাজিক ও পারিবারিক জীবনে কী কী সমস্যার সমাধান হতে হয়, সেটিই দৃশ্যবন্দি করা হবে মাসুম শাহরিয়ারের রচনায় নির্মিত এ নাটকে। এ তথ্যগুলো প্রিয়.কমকে দিলেন অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী। তবে নাটকের পরিশেষে কী হবে, সেটা তিনি রেখে দিলেন সাসপেন্স হিসেবে। নিতান্তই নাট্যপ্রেমিদের জন্য। 

বোবা চরিত্রে কেমন লাগবে মেহজাবিনকে? ছবি: শামছুল হক রিপন; প্রিয়.কম

ততক্ষণে চলে এসেছে শটের ডাক। ক্যামেরার সামনে এখনই দাঁড়াতে হবে তাকে। আর তাই কথা দীর্ঘ না করে চলে গেলাম বড় ছেলে নাটক পরবর্তী নাটকগুলোতে তার চ্যালেঞ্জ প্রসঙ্গে। ‘বড় ছেলে’ নাটকের পর বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। এ নাটকটি করার পর নিজেই যেন হয়ে উঠেছেন নিজের প্রতিদ্বন্দ্বী। দর্শকের চাওয়া বেড়েছে মেহাজাবিনের ওপর। এ বিষয়ে কী ভাবেন তিনি? ‘হ্যাঁ, এটা আসলে সেভাবে দেখতে গেলে, এটা সত্য। চেষ্টা করি প্রতিটি কাজই যেন আগের তুলনায় ভালো করতে পারি। এটাই চেষ্টা, সব সময় এটাই চেষ্টা ছিল। ভালো কাজ করার চেষ্টা করি, চরিত্র বোঝার চেষ্টা করি, কী করা যায় নিজে ভাবি, এ-ই আর কি।’ এ উত্তর দিয়ে চলে গেলেন শুটিংয়ে, ক্যামেরার সামনে। ফুরিয়ে গেল ৩০ মিনিট।

অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী ও অভিনেতা ইরফান সাজ্জাদ ছাড়াও অমৃত কথা নাটকে অভিনয় করেছেন ডেইজি আহমেদ, প্রিমা ফরহাদ বিদ্যাসহ আরও অনেকে। শিগগিরই কোনো বেসরকারি চ্যানেলে এ নাটকটি প্রচার হবে বলে প্রিয়.কমকে জানিয়েছেন পরিচালক লুৎফর রহমান সোহেল।

প্রিয় বিনোদন/গোরা 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
বিজয় দিবসের গানে আবদুল হাদী
নিজস্ব প্রতিবেদক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
এক ক্লিকেই দুটি সময়
নিজস্ব প্রতিবেদক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
প্রেমেরই ছোয়া গানে আতিক ও ঝরা
প্রিয় ডেস্ক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
ওয়েব সিরিজে আইরিন
নিজস্ব প্রতিবেদক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
‘এবাদত’-এর পর ‘এখন বলা যায়’
নিজস্ব প্রতিবেদক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
১৪ ডিসেম্বর ‘জন্মভূমি’
তাশফিন ত্রপা ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
তাদের ‘ফার্স্ট লাভ’
নিজস্ব প্রতিবেদক ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮
‘আমি সবসময় মনে করি, অনেক পিছিয়ে আছি’
মিঠু হালদার ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮