(প্রিয়.কম) মুম্বাইয়ে চলছে বৃষ্টি। তুমুল বৃষ্টি। গত এক দশকে ডিসেম্বরে কখনো এত বৃষ্টি হয়নি এখানে। ঘূর্ণিঝড় অক্ষির কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল, কলেজ।জনজীবন বিপর্যস্ত, মৎস্যজীবীদের মাছধরা বন্ধ। ছেয়ে আসছে আতঙ্ক। ইতোমধ্যে অক্ষি আঘাত হেনেছে কেরালায়, তামিলনাড়ুতে। বাড়ছে মৃতের সংখ্যা।

ঘুর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি কমাতে উদ্যোগী হয়েছে স্থানীয় সরকার। আর তারই অংশ হিসেবে ভ্রমণকারীদের মুম্বাইয়ের সৈকতগুলো ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই ঘূর্ণিঝড় কতোটা প্রাণহানি ঘটাবে তা বলা যাচ্ছে না। তবে জানমালের নিরাপত্তায় তৎপর হয়ে উঠেছে প্রশাসন।

তাই ভ্রমণকারীরা যারা মুম্বাই যাওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন, আপাতত পরিকল্পনা পরিবর্তন করুন। ঝড় থামা অব্দি অপেক্ষা করতেই হবে। প্রচণ্ড বৃষ্টিতে সাধারণ মানুষের জীবনই এখন ঝুঁকিতে। পরিকল্পনা বদলানো ছাড়া কোনো উপায় নেই।

উল্লেখ্য যে, ঘূর্ণিঝড়ের এই 'অক্ষি' নামটি বাংলাদেশের দেওয়া। মূলত ঘূর্ণিঝড়ের নামগুলো আগেই ঠিক করা হয়। এরপর যখন ঝড় হয় তখন পর্যায়ক্রমে পূর্ব নির্ধারিত তালিকা থেকে নাম ব্যবহার করা হয়। এভাবেই ঘুর্ণিঝড় ‘মোরা'র পর এবার এসেছে 'অক্ষি'।

সম্পাদনা : ড. জিনিয়া রহমান

প্রিয় ট্রাভেল সম্পর্কে আমাদের লেখা পড়তে ভিজিট করুন আমাদের ফেসবুক পেইজে। যেকোনো তথ্য জানতে মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। ভ্রমণবিষয়ক আপনার যেকোনো লেখা পাঠাতে ক্লিক করুন  - https://www.priyo.com/post।