প্রতীকী ছবি।

মেসেঞ্জার ব্যবহার করে নকলের চেষ্টা, ছয় মাসের কারাদণ্ড

কিছু সময় পর সোহেল ও ফয়সাল আরিফুলের মেসেঞ্জারে প্রশ্নের উত্তর পাঠিয়ে দেয়।

মশিউর রহমান রাহাত
কন্ট্রিবিউটর, পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৫ এপ্রিল ২০১৮, ২১:০৬ আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৪৮
প্রকাশিত: ০৫ এপ্রিল ২০১৮, ২১:০৬ আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৪৮


প্রতীকী ছবি।

(প্রিয়.কম) পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলায় এইসএসসি পরীক্ষায় অসাদুপায় অবলম্বন করায় শিক্ষার্থীসহ দুই সহযোগীকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

৫ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার উপজেলার মজিদা বেগম মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।  

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ইংরেজি প্রথম পত্রের পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষায় ভান্ডারিয়া সরকারি কলেজের ছাত্র আরিফুল ইসলাম (রোল নং- ৮১৭৭১০) তার মোবাইলের ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে প্রশ্নপ্রত্র পাঠায় বাইরে থাকা দুই সহযোগী সোহেল ও ফয়সালকে। কিছু সময় পর সোহেল ও ফয়সাল আরিফুলের মেসেঞ্জারে প্রশ্নের উত্তর পাঠিয়ে দেয়। এ সময় ওই কেন্দ্রে প্রশাসনের দায়িত্বে থাকা উপজেলা অ্যাকাডেমিক সুপারভাইজার মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বিষয়টি হাতেনাতে ধরেন। 

বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহীন আক্তার সুমীকে অবহিত করা হলে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে প্রত্যেককে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- রাজাপুর উপজেলার গালুয়া গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে পরীক্ষার্থী আরিফুল ইসলাম, ভান্ডারিয়ার দুলাল বেপারির ছেলে সোহেল ও একই উপজেলার গফুর জমাদ্দারের ছেলে ফয়সাল। 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা অ্যাকাডেমিক সুপারভাইজার মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, ‘ভ্রাম্যমাণ আদালত ওই তিনজনের প্রত্যেককে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে।’

প্রিয় সংবাদ/আজাদ/কামরুল

 

 

 

                      

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...