(প্রিয়.কম) গত ডিসেম্বরে তৈমুরকে জন্ম দেন কারিনা কাপুর খান। কারিনার প্রথম সন্তান হলেও তৈমুর সাইফ আলি খানের তৃতীয় সন্তান। প্রথম স্ত্রী অমৃতা সিংয়ের সংসারে জন্ম নেয় ইব্রাহিম আলি খান ও সারা আলি খান। তবে সবার চেয়ে বেশি লাইমলাইটে আছেন তৈমুর আলি খান। যে ছোট্ট নবাবকে নিয়ে এতো মাতামাতি, সে বাড়িতে না থাকলে নাকি খুশি হন বাবা সাইফ! 

সাইফ জানালেন, কারিনা তৈমুরকে নিয়ে বাইরে কোথাও গেলে তিনি নাকি মনে মনে খুশিই হন। কারণ তাতে বেশ কিছুটা সময় নিজের মতো করে কাটানোর সুযোগ পান তিনি। সম্প্রতি হিন্দুস্থান টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সাইফ এ কথা বলেন। 

সাইফের ভাষায়, ‘কারিনার আসন্ন সিনেমার শুটিং শুরুর প্রথম দিন যখন তৈমুরকে দিল্লি নিয়ে গেল, তখন বেশ খুশিই হয়েছিলাম। মনে হয়েছিল বাড়িতে একা থাকা যাবে। নিজের সঙ্গে সময় কাটাতে আমার বেশ ভালোই লাগে। তবে কিছুদিন পরেই আমি ওদের খুব মিস করছিলাম। আমি যে অভিভাবক হিসাবে দারুন, তা নয়। তবে তৈমুর আমার জীবনকে ঘিরে রয়েছে। তাই কখনো নিজের সঙ্গে সময় কাটাতেও ভালো লাগে আবার কখনো ওদের উপস্থিতিও ভালো লাগে।'

সাইফ আরও বলেন, 'কিছু লোকজন থাকে, যারা সবসময় আবদ্ধ থাকতে ভালোবাসে না। তাদের মধ্যে আমি একজন। আমার সঙ্গে একা থাকলে তৈমুরেরও মন খারাপ থাকে। তবে এখন কারিনা ফিরে গেছে তাই ও খুশি। কারিনার এনার্জির জন্য পরিবারেও সমতা থাকে।'

এদিকে মা হওয়ার পর প্রথম সিনেমায় অভিনয় করেছেন কারিনা। নাম ‘ভীরে দী ওয়েডিং’। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ছবিটির পোস্টার। এতে আরও অভিনয় করেছেন সোনম কাপুর, স্বরা ভাস্কর। পরিচালনা করেছেন রিয়া কাপুর। শিগগিরই মুক্তি পাবে ছবিটি।

সূত্র: পিঙ্কভিলা

প্রিয় বিনোদন/সিফাত বিনতে ওয়াহিদ