দারিদ্র্য হ্রাসে নতুন কৌশল ও আচরণগত অর্থনীতি

বণিক বার্তা প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০১:২৩

অন্যান্য নোবেল পুরস্কারের মতো অর্থনীতির নোবেল পুরস্কার নিয়েও আগ্রহের অন্ত নেই। যদিও নোবেল পুরস্কার দেয়ার কোনো সংক্ষিপ্ত তালিকা নেই, তবু আপনি যদি একজন সাদা চামড়ার মার্কিন অর্থনীতিবিদ হন, আর বয়স যদি ৫৫ বছর বা তার বেশি হয়, তাহলে নোবেল পুরস্কারের দাবিদার হতেই পারেন। দৈনিক বণিক বার্তার যারা নিয়মিত পাঠক, তারা নিশ্চয়ই খেয়াল করেছেন ১২ অক্টোবর প্রকাশিত আমার এক লেখায় এ বছর সম্ভাব্য যে কয়েকজন প্রার্থী ছিলেন, তাদের মধ্য থেকে দুজন এ পুরস্কার পেয়েছেন। এ বছর অর্থনীতির নোবেল পুরস্কার নিয়ে তিনটি ভিন্ন আলোচনা করা যেতে পারে। প্রথমত, ২০১৭ সালের (রিচার্ড থ্যালার ভোক্তার মনস্তত্ত্ব বিশ্লেষণ করে নোবেল পেয়েছিলেন) মতো অর্থনীতির উৎপাদন ব্যবস্থাপনায় আচরণগত বিষয়টি কীভাবে ভূমিকা রাখছে। দ্বিতীয়ত, দারিদ্র্য দূরীকরণের বিষয়টি কেন গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচিত হয়েছে। তৃতীয়ত, র্যান্ডমাইজড কন্ট্রোল ট্রায়ালের (আরসিটি) ব্যবহার কীভাবে উন্নয়ন অর্থনীতির বিভিন্ন চলকের পরিমাণ ও ব্যাখ্যায় ব্যবহার হয়েছে।
সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
আরও

Unveiling the limits of anti-corruption drive

২ ঘণ্টা, ৫৩ মিনিট আগে

Myanmar’s denial won’t change facts

২ ঘণ্টা, ৫৩ মিনিট আগে

Rural areas shouldn’t be left behind

৩ ঘণ্টা, ১৮ মিনিট আগে

Learning from the wisdom of the martyrs

৩ ঘণ্টা, ১৮ মিনিট আগে

Between Brexit and ‘Scotexit’

৩ ঘণ্টা, ১৮ মিনিট আগে