ভয়ংকর প্রথা! জন্মনিরোধক যখন কুমিরের মল!

ডেইলি বাংলাদেশ প্রকাশিত: ১৭ জানুয়ারি ২০২০, ১৬:১২

প্রাচীনকাল সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য জানার আগ্রহ রয়েছে সবার মনেই। বর্তমান যুগে সবকিছুই হাতের নাগালে পেয়ে যাচ্ছি আমরা। তবে অতীতে কেমন ছিল সেসবের ব্যবস্থা, কখনো ভেবে দেখেছেন কি? সবার মনেই প্রাচীনকাল নিয়ে কিছু ভুল, সঠিক, অন্ধবিশ্বাস বা অর্ধসত্য বিষয় রয়েছে। তেমনি কয়েকটি ঘটে যাওয়া অদ্ভুত বিষয় রয়েছে যা মারাত্মক এবং বর্তমান সময়ে হাস্যকরও বটে।  ভ্রু কেটে বিড়ালের প্রতি শোক প্রকাশ প্রাচীনকালে মিশরীয়দের প্রিয় পোষ্য ছিল বিড়াল। তাদের মতে, বিড়ালই নাকি তাদের সৌভাগ্য বয়ে আনত। প্রিয় পোষ্যটি মারা গেলে তারা সেটির মমি বানাত। অতঃপর তাদের ভ্রু কেটে ফেলে বিড়ালটির প্রতি শোক প্রকাশ করতেন। রসুনের সাহায্যে গর্ভধারণ পরীক্ষা রসুনের সাহায্যে গর্ভধারণ পরীক্ষা করতেন চিকিৎসকরা। অতীতে এমনই রীতি ছিল। এই প্রক্রিয়ায় নারীর যৌনাঙ্গে একদিনের জন্য রসুনের কোয়া রেখে দেয়া হত। চিকিৎসকরা পরবর্তীতে সেই রসুনের কোয়ার গন্ধ পরীক্ষা করেই গর্ভধারণ নিশ্চিত করতেন।  একই টয়লটে হাজারো জন প্রাচীন রোমের চিত্র এমনই ছিল। মাত্র পাঁচ শতাংশ বড়লোকদের ব্যক্তিগত টয়লেট ব্যবহারের সক্ষমতা ছিল। বাকি ৯৫ শতাংশ মানুষের ভরসা ছিল পাবলিক টয়লেট।
সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
আরও