পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন: চ্যালেঞ্জ ও বাস্তবতা

ঢাকা পোষ্ট প্রকাশিত: ০৯ মে ২০২১, ১১:৩৩

অমিত শাহ ম্যাজিক মেকার, সাবেক সর্বভারতীয় দলীয় প্রধান ও বিজেপির আধ্যাত্মিক গুরু। নরেন্দ্র মোদি মৌলবাদকে ব্যবহার করে ভারতবর্ষের রাজনীতিতে সফল হিন্দুত্ববাদের অগ্রনায়ক, একজন প্রধানমন্ত্রী, অন্যজন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অর্ধ শতাব্দীর ধর্ম নিরপেক্ষ ভারতের চেহারাকে বদলে দিতে এই দুই মহীরুহ ম্যাজিকের মতোই কাজ করেছেন, ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেছেন।


সর্বভারতীয় কংগ্রেসের রাজনীতির বাগানকে তছনছ করে দিয়ে, ভারতবর্ষের উত্তরাধিকারের রাজনীতির আদর্শ গান্ধী পরিবারকে হঠিয়ে রেকর্ডসম সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দাপটে উগ্র সাম্প্রদায়িক আদর্শকে অবিরত বাস্তবায়ন করে চলেছেন। তাই হিন্দুত্ববাদ তথা সাম্প্রদায়িকতার সম্প্রসারণে এবারের পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচন মোদি-অমিত শাহদের জন্য ছিল এক বিরাট চ্যালেঞ্জ। আর এই চ্যালেঞ্জে জয়ী হওয়ার মানসে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হয়ে রেকর্ড সংখ্যক পশ্চিমবঙ্গ সফর করেছেন মোদি। প্রতিটি সফরেই একদিকে ধর্মীয় আবরণ আর অন্যদিকে ক্ষমতার চাণক্যকে ব্যবহার করে জনতাকে কাছে টানার প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন। ভারতীয় এনআরসি বাস্তবায়নে প্রধান বাধা মমতাকে সরিয়ে বিজেপিকে বিধানসভার নেতৃত্বে আনতে মরিয়া, বিজেপি কি পশ্চিমবঙ্গে হেরে গেছে? মমতার নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস কি সত্যি জিতে গেছে? মমতার বিজয় কি সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে ধর্ম নিরপেক্ষতার বিজয়?

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
এই সম্পর্কিত