‘এটাকে নেতিবাচক ভাবে না নিলেই ভালো হয়’

মানবজমিন প্রকাশিত: ২৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

ঈদের সময়ে সব শিল্পীরই ব্যস্ততা বেশি থাকে। রাত-দিন কাজ করতে হয় আমাদের। আর  রোজার ঈদের পর কোরবানি ঈদের জন্য সময় কম পাওয়া যায়। অল্প সময়ের মধ্যে সব কাজ শেষ করতে হয়। এ সময়ে ঈদের ব্যস্ততা নিয়ে এভাবেই বললেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম। এই অভিনেত্রী গতকাল ‘সরি বলো’ শিরোনামের একটি নাটকের শুটিং করেন। এটার নির্মাতা এস এ হক অলিক। এই নাটকে মম থাকছেন চঞ্চল চৌধুরীর বিপরীতে। এদিকে এই অভিনেত্রী সম্প্রতি বিপাশা হায়াতের গল্পে তৌকীর আহমেদের নির্দেশনায় ‘স্বর্ণলতা’ নামের একটি নাটকে অভিনয় করেছেন। এ নিয়ে তিনি বেশ উচ্ছ্বসিত। তার ভাষ্য, বিপাশা আপা আমার খুব প্রিয় একজন অভিনেত্রী। তার লেখা গল্পও দারুণ। এদিকে তৌকীর ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করে অনেক কিছু জানা যায়। অনেক বেশি আগ্রহ নিয়ে এই নাটকে কাজ করেছি। গেল ঈদে মমর অভিনয়ে ‘অন্ধকার ঢাকা’ শিরোনামের একটি নাটক বেশ আলোচনায় আসে। এছাড়া বরাবরই তার অভিনীত নাটকের প্রতি দর্শকের আগ্রহ থাকে দারুণ। মম অভিনয়ের সময়ে কোন বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, শুধু অর্থ উপার্জনের জন্য নয়। কাজের ক্ষেত্রে সবসময় দায়বদ্ধতার বিষয়টি মনে রাখি। দর্শক আমাকে ভালোবাসেন। তাদের প্রত্যাশা আমার পূরণ করা উচিৎ। সুতরাং  কাজ করার সময় দর্শকের কথা ভুলে গেলে চলবে না। দর্শক ভালোবাসেন বলেই নির্মাতারা আমাকে নিয়ে কাজ করার সাহস পান। বর্তমানে টেলিভিশনের বাইরে নাটক নির্মাণ হচ্ছে ইউটিউব চ্যানেলের জন্য। ইউটিউব নাটক নিয়ে দর্শকের অনেক নেতিবাচক মন্তব্য শোনা যায়। বিষয়টিকে মম কিভাবে দেখছেন? তিনি বলেন, ইউটিউবের জন্য নাটক নির্মাণ হওয়ার কারণে শিল্পী-নির্মাতাদের কাজের সংখ্যা বেড়েছে। এটাকে আমি ভালোই মনে করি। নাটক নিয়ে নির্মাতাদের চ্যানেলে-চ্যানেলে ঘুরতে হচ্ছে না। এদিকে টিভির জন্য যখন নাটক নির্মাণ হয় তখন অনেক কিছু পর্দায় নিয়ে আসা যায় না। ইউটিউবের নাটকে নির্মাতা স্বাধীনতা পাচ্ছেন। ফলে তিনি মনের মতো করে কাজ করছেন। এটাকে নেতিবাচক ভাবে না নিলেই ভালো হয়। আলাপনে মম তার ক্যারিয়ার নিয়েও কথা বলেন। তিনি বলেন, আমি কখনো কাজের সংখ্যা গুনি না। আমি অভিনেত্রী এটা আমার পরিচয়। সব সময় ভালো কাজ করে যেতে চাই। নিজেকে বিভিন্ন চরিত্রের মধ্য দিয়ে ভাঙ্গতে চাই। দর্শক যেন আমার কাজের জন্য আমাকে মনে রাখে সেটাই আমি চাই। একজন শিল্পী তার কাজের মধ্যেই বেঁচে থাকে। নিজের জন্য হলেও ভালো কিছু কাজ করবো। টিভি নাটকের বাইরে বড় পর্দায়ও এই অভিনেত্রী দারুণ সমাদৃত। তার অভিনয়ে সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র হলো ‘দহন’। গেল বছরের শেষের দিকে এটি মুক্তি পায়। গেল বছর মমর ‘আলতাবানু’ ও ‘স্বপ্নঘর’ শিরোনামের আরও দুটি চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে। এই দুটি ছবির জন্যও তিনি দর্শকের কাছে দারুণ প্রশংসিত হয়েছেন। অভিনেত্রী থেকে মম এখন নেত্রীও বটে। তিনি অভিনয় শিল্পী সংঘের কার্যনির্বাহী সদস্য।  মম বলেন, গত মেয়াদেও একই পদে আসিন ছিলাম। এবারও আমাকে কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেছেন সহকর্মীরা। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে আমি আরও অনেকদূর এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে কাজ করে যাবো। গতবারের কর্মসূচীর মধ্যে যে কাজগুলো শেষ করতে পারিনি সেগুলো নিয়ে আবার কাজ করবো।
সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
আরও

অন্যরকম প্রসূন

১ ঘণ্টা, ২৯ মিনিট আগে

‘গহীনের গান

১ ঘণ্টা, ৩০ মিনিট আগে