ছবি সংগৃহীত

অর্থপাচার মামালায মোশাররফের বিরুদ্ধে র্জশিট অনুমোদন

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) অর্থ পাচারের এক মামলায় বেক স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী এবং বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দিয়েছে।

priyo.com
লেখক
প্রকাশিত: ০৭ আগস্ট ২০১৪, ১১:৩০ আপডেট: ১৭ জুন ২০১৮, ২২:৪৬
প্রকাশিত: ০৭ আগস্ট ২০১৪, ১১:৩০ আপডেট: ১৭ জুন ২০১৮, ২২:৪৬


ছবি সংগৃহীত
(প্রিয়.কম) দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) অর্থ পাচারের এক মামলায় বেক স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী এবং বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দিয়েছে।ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে অর্জিত সাড়ে নয় কোটি টাকা যুক্তরাজ্যে পাচারের দায়ে এ চার্জশিট অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি দুদকের পরিচালক নাসিম আনোয়ার বাদি হয়ে রমনা মডেল থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার কমিশন এ চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দেয়। কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন মন্ত্রী থাকাকালীন ক্ষমতার অপব্যবহার, দুর্নীতি ও মানিলন্ডারিংয়ের মাধ্যমে অবৈধভাবে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রা গোপন করে আইন পরিপন্থি কাজ করেছেন। তিনি ও তার স্ত্রী বিলকিস আক্তার হোসেনের যৌথনামে যুক্তরাজ্যের Lloyds TSB Offshore Private Bank-এ ৮ লাখ ৪ হাজার ১৪২.৪৩ ব্রিটিশ পাউন্ড (হিসাব নং- ১০৮৪৯২) জমা করেন। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৯ কোটি ৫৩ লাখ ৯৫ হাজার ৩৮১ টাকা হয়। ড. খন্দকার মোশাররফ ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকাকালীন ওই টাকা পাচার করেন বলে দুদকের তদন্তে প্রমাণ পাওয়া যায়। দুদক মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০০২ এর ১৩ ধারা, ২০০৯ এর ৪ ধারা এবং ২০১২ এর ৪ ধারায় এ চার্জশিট অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় মোশাররফ হোসেনের স্ত্রীর কোনো সম্পৃক্ততা না থাকায় তাকে আসামি করা হয়নি।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...