ছবি সংগৃহীত

মাইক্রোসফট বাংলাদেশের বাংলা অ্যাপ প্রতিযোগিতা

ভাষার মাস ফেব্রুয়ারীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করার লক্ষ্য নিয়ে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ আয়োজন করে এক বিশেষ বাংলা অ্যাপ প্রতিযোগিতা।

priyo.com
লেখক
প্রকাশিত: ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, ১০:২৮ আপডেট: ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ০৭:৩৪
প্রকাশিত: ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, ১০:২৮ আপডেট: ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ০৭:৩৪


ছবি সংগৃহীত
(প্রিয়.কম) ভাষার মাস ফেব্রুয়ারীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করার লক্ষ্য নিয়ে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ আয়োজন করে এক বিশেষ বাংলা অ্যাপ প্রতিযোগিতা। ২০ ফেব্রুয়ারী, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের ঠিক পূর্বমুহূর্তে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতার মূল প্রেরণা ছিল বাংলাদেশ এবং বাংলা ভাষা। সকলের জন্য উন্মুক্ত এই প্রতিযোগীতার মাধ্যমে উইন্ডোজ স্টোরে অ্যাপ জমা দিয়ে দেশপ্রেম পুনোরজ্জিবীত করতেই উদ্দীপ্ত তরুনেরা যোগ দেন। মাইক্রোসফট বাংলাদেশের গুলশান কার্যালয়ে অনুষ্ঠানটি শুরু হয় ঠিক সকাল নয়টায়। এখানে তিরিশজন প্রতিযোগী সমবেত হন। প্রথমেই বাংলা অ্যাপ বানানোর সকল তথ্যদির সাথে পরিচয় করিয়ে দেন অ্যাপ স্টুডিও প্রশিক্ষকগন। তারপর শুরু হয়ে যায় মূল প্রতিযোগিতার পালা।দিনব্যাপি এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে উইন্ডোজ এবং উইন্ডোজ ফোন স্টোরে পাবলিশ করা হয়। প্রত্যেক অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ সম্পর্কিত নির্ধারিত বিষয়ে যত বেশি সম্ভব অ্যাপ নির্মাণ করেন যার মধ্যে অন্তত একটি ছিল সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় এবং অতি উচ্চমানের এবং সেবামূলক। গুনগত মান এবং সংখ্যা- এই দুইয়ের ভিত্তিতে বিচার করা হয় অ্যাপগুলোকে। প্রতিযোগিতার বিচারক ছিলেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশের টেক ইভাঞ্জেলিস্ট তানজিম সাকীব। তিনি তরুণদের উৎসাহব্যাঞ্জক বক্তব্য প্রদান করেন, এবং ডেভেলপার সম্প্রদায়ের প্রতি মাইক্রোসফট বাংলাদেশের প্রতিশ্রুতি এবং আগামীদিনের পরিকল্পনা পূনর্ব্যাক্ত করে, ফলাফল ঘোষনা-পূর্বকশ্রেষ্ঠ ১২ জনবিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরন করেন। নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীমো. খালিদ হাসানপ্রথম স্থান, ইস্ট ওয়েস্টবিশ্ববিদ্যালয়ের এমআই পরশদ্বিতীয় স্থান এবং লন্ডন আন্তর্জাতিক কার্য্যক্রমবিশ্ববিদ্যালয়ের মোরশেদুল ইসলাম মুনতৃতীয় স্থান অর্জন করেন। এই তিন বিজয়ী পেয়ে যান আকর্ষণীয় লুমিয়া মোবাইল ফোন। এছাড়াও বাকি প্রতিযোগীরা বিশেষ পুরস্কার হিসেবে জিতে নেন মাইক্রোসফট এর লোগো সম্বলিত টি-শার্ট ও ব্যাজ। উপস্থিত সকল অংশগ্রহণকারীদের দেয়া হয় অংশগ্রহণের সনদপত্র। নিজের অংশগ্রহনের অভিজ্ঞতা জানিয়েআহসানুল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারহানা ইয়াসমিন উদ্দীপনার সাথে বলেন“মাইক্রোসফটের সাথে আমার কাজ করার ইচ্ছা অনেকদিন থেকে। উইন্ডোজ অ্যাপ স্টুডিও আমাকে সে সুযোগ করে দিয়েছে এরকম একটি প্রতিদ্বন্দীতাপূর্ণ প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহন। অ্যাপ স্টুডিওর সহজবোধ্যতা এবং মাইক্রোসফটের বাংলাদেশে অ্যাপ স্টুডিও নিয়ে বিনামূল্যের প্রশিক্ষন কারীগরী জ্ঞান ছাড়াই অ্যাপ তৈরীতে কার্য্যকর ভূমিকা রাখছে।” আরেকজন প্রতিযোগী ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শ্রাবণী সরকার মাইক্রোসফটকে ধন্যবাদ জানান এরকম একটি প্রতিযোগীতার আয়োজন করার জন্য। মাইক্রোসফট বাংলাদেশ নিয়মিত অ্যাপ তৈরীরপ্রশিক্ষন এবং প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে, যেটার পাঠ্যসূচী এবং পাঠদান প্রোগ্রামিং না জানা মানুষের জন্য বিশেষভাবে তৈরী। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন http://aka.ms/appstudiotraining এই ঠিকানায়।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...