ছবি সংগৃহীত

যাত্রা শুরু করলো ই-ক্যাব

দেশীয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের নিয়ে যাত্রা শুরু করলো ইলেক্ট্রনিক কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। প্রায় ৬০টির বেশি প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের নিয়ে গঠিত হলো নতুন এ সংগঠন।

priyo.com
লেখক
প্রকাশিত: ০৮ নভেম্বর ২০১৪, ১৯:২৯ আপডেট: ০১ আগস্ট ২০১৮, ০৫:১৭
প্রকাশিত: ০৮ নভেম্বর ২০১৪, ১৯:২৯ আপডেট: ০১ আগস্ট ২০১৮, ০৫:১৭


ছবি সংগৃহীত
(প্রিয়.কম) দেশীয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের নিয়ে যাত্রা শুরু করলো ইলেক্ট্রনিক কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। প্রায় ৬০টির বেশি প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের নিয়ে গঠিত হলো নতুন এ সংগঠন। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির উদ্বোধন করেন ই-ক্যাবের নতুন সভাপতি রাজীব আহমেদ। উক্ত সংগঠনের সঙ্গে ঢাকা ছাড়াও চট্টগ্রাম ও সিলেটের উদ্যোক্তারা রয়েছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে সংবাদ সম্মেলনে বর্তমান শিক্ষা সচিব নজরুল ইসলাম খান বলেন, 'ই-কমার্সের মাধ্যমে অনলাইনে কেনাবেচার পরিধি দেশের বাইরে ছড়িয়ে দেয়া সম্ভব আর এর মাধ্যমে মানুষের সময় ও শ্রম বাঁচানোর পাশাপাশি অনেকের কর্মসংস্থানও হবে।' তিনি আরও সচিব বলেন, 'দেশে ই-কমার্সকে আরও জনপ্রিয় করতে হলে ক্রেতাদের ক্রয়কৃত পণ্য দ্রুত ডেলিভারি দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। আর এটি করতে বাংলাদেশ ডাক ব্যবস্থাকে ব্যবহার করা যায়। নব নির্বাচিত ই-কমার্স নেতাদের ডাক ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে সরকারকে লিখিত অনুরোধ করার পরামর্শও দেন তিনি। সংগঠনের সভাপতি রাজীব আহমেদ বলেন, 'সবার জন্য অনলাইনে পণ্য কেনাবেচা বিষয়টি নিশ্চিত করতে আমরা দেশের প্রতিটি অঞ্চলে ই-কমার্সকে জনপ্রিয় করতে চাই।' দেশে বর্তমানে প্রায় ৩০০ ই-কমার্স সাইট ও ৩ হাজার ফেসবুক পেইজে বেচাকেনা হচ্ছে। আগামী ১০ বছরের মধ্যে এই ই-কমার্স হবে মোবাইল কিংবা গার্মেন্টসের চেয়েও বড় খাত। ই-ক্যাব অনলাইন জালিয়াতির মতো জটিলতা নিয়ন্ত্রণেও কাজ করবে বলে জানান রাজীব। সংগঠনটি নিয়ে রাজীব আরও বলেন, 'উদ্যোক্তাদের যে কোন ধরনের সহযোগিতার জন্য একটি অনলাইন কল সেন্টারও চালু করা হতে পারে।' সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সহ-সভাপতি সৈয়দা গুলশান ফেরদৌস, সাধারণ সম্পাদক মোঃ. আব্দুল ওয়াহেদ তমাল, যুগ্ম সম্পাদক মীর শাহেদ আলী, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল হক, গভর্নমেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক পরিচালক রেজওয়ানুল হক জামী, কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক পরিচালক সেজান সামস, ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক পরিচালক মোঃ. সুমন হাওলাদার ও কমিউনিকেশনস বিভাগের পরিচালক আসিফ আহনাফ প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...