বিক্ষোভ সমাবেশে সাংবাদিক নেতারা। ছবি: প্রিয়.কম

১৬ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের অবস্থান কর্মসূচি

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (একাংশ), ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, ঢাকা সাব এডিটর কাউন্সিল, ফটো জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরাও এ বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নেন।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৪৭ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০২:১৬
প্রকাশিত: ১১ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৪৭ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০২:১৬


বিক্ষোভ সমাবেশে সাংবাদিক নেতারা। ছবি: প্রিয়.কম

(‌প্রিয়.কম) সাংবাদিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ১৬ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মোল্লা জালাল।

১১ আগস্ট শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আ‌য়ো‌জিত বি‌ক্ষোভ সমা‌বে‌শে থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। দায়িত্বরত অবস্থায় সাংবাদিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)।

মোল্লা জালাল বলেন, ‘আমরা সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে চাই না। ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ওই দিন আমরা সমা‌বেশ করব। সমাবেশে বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে আলোচনা হবে। পরের দিন ১৬ আগস্ট স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা হবে। তার কার্যালয়ে সাংবাদিকরা অবস্থান করবে। দেখি ঠেকাতে পারেন কি না।’

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (একাংশ), ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, ঢাকা সাব এডিটর কাউন্সিল, ফটো জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরাও এ বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নেন।

মোল্লা জালাল আরও বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন বিভাগ ও জেলায় সাংবাদিক সমাজ বিক্ষোভে নেমেছে। আমাদের দাবি একটাই আমরা নিরাপত্তা চাই। সাংবাদিকরা রাষ্ট্রের জন্য কাজ করে। তাই রাষ্ট্রের দায়িত্ব সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। তথ্য মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে আহত সাংবাদিকদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছে। কিন্তু সাংবাদিকদের দাবি হামলাকারীদের গ্রেফতার করতে হবে।’

সাংবাদিক সমাজ এখনই  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ঘৃণা জানাতে চায় না মন্তব্য ক‌রে বিএফইউজে সভাপতি বলেন, ‘সাংবাদিকরা না লেখলে আপনারা বোবা হয়ে যাবেন। সাংবাদিকরা চান না আপনারা বোবা হয়ে যান।’

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে উদ্দেশ্যে করে বিএফইউজে সভাপতি বলেন, ‘যত দিন যাচ্ছে আপনারা অদক্ষতার প্রমাণ দিচ্ছেন। অথচ পুলিশের দায়িত্ব নাগরিকদের নিরাপত্তা দেওয়া, নিরাপত্তা নি‌শ্চিত করা।’

বিএফইউজে মহাসচিব শাবান মাহামুদ বলেন, ‘সাংবাদিকদের ওপর যে দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়েছে, যারা নগ্ন হামলায় উল্লাস করে। প্রশাসনের আড়ালে তারা নিজেদের নিরাপদে রেখেছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছিলেন দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার করার। কিন্তু মন্ত্রী তা না করে উপহাস করে চলেছেন।’

সাংবাদিকদের কাজ করতে দিন, রাজপথে ঠেলে দিবেন না–এমন কথা উল্লেখ করে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (একাংশ) সভাপতি আবু জাফর সূর্য বলেন, ‘দুর্বৃত্তরা চিহ্নিত হলে তাদের গ্রেফতার করেন। সরকার সাংবাদিক হামলার বিষয়ে কোনো কাজ করে থাকলে তা দৃশ্যমান করেন।’

প্রিয় সংবাদ/হাসান/রিমন