ডাচ-বাংলা ব্যাংকের টায়ার ফোর ডাটা সেন্টারের উদ্বোধন করছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ছবি: সংগৃহীত

‘বাংলাদেশ ক্যাশলেস সোসাইটির দিকে ধাবিত হচ্ছে’

তিনি জানান, দেশে ডিজিটাল সেবা সম্প্রসারণের ফলে ডিজিটাল অপরাধও বাড়ছে।

রাকিবুল হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:২৮ আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:২৯
প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:২৮ আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:২৯


ডাচ-বাংলা ব্যাংকের টায়ার ফোর ডাটা সেন্টারের উদ্বোধন করছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ডিজিটালাইজেশনের ফলে বাংলাদেশ একটি ক্যাশলেস সোসাইটির দিকে ধাবিত হচ্ছে বলে আশা প্রকাশ করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার

২০ অক্টোবর, শনিবার রাজধানীর ডুমনিতে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের টায়ার ফোর ডাটা সেন্টারের উদ্বোধনকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘ডিজিটালাইজেশনের ফলে বাংলাদেশ একটি ক্যাশলেস সোসাইটির দিকে ধাবিত হচ্ছে। ডিজিটালাইজেশনের ফলে ২০০৯ সালের পর থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহে অভাবনীয় রূপান্তর হয়েছে। ডিজিটাল ব্যাংকিং দেশের সাধারণ মানুষের অতি পরিচিত ও জনপ্রিয় একটি সেবায় রূপান্তরিত হয়েছে।’

তিনি জানান, দেশে ডিজিটাল সেবা সম্প্রসারণের ফলে ডিজিটাল অপরাধও বাড়ছে।

আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল নিরাপত্তা অধিকতর নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে মন্ত্রী বলেন, ‘বাইরের প্রযুক্তি বা সফটওয়ার ব্যবহারের একসময় প্রয়োজন ছিল। কিন্তুু প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য নিজেদের মানুষকে গড়ে তুলছি কি না, সে জায়গাটায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। ব্যাংকিং খাতের নিরাপত্তার সাথে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা জড়িত। কাজেই নিরাপত্তা বিধানে নিজেদের সচেষ্ট হতে হবে।’

আইসিটি খাতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচির কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ব্যাংক বা যে কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দক্ষজনবল তৈরিতে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানে প্রস্তুত।

মন্ত্রী বলেন, ‘ডিজিটাল রূপান্তর বেগবান করতে এবং সাইবার নিরাপত্তা বিধানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত আন্তরিক। তারই নেতৃত্বে ডিজিটাল দুনিয়ায় বাংলাদেশ নেতৃত্বকারী দেশ হিসেবে পরিচিত পেয়েছে।’

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসএম মনিরুজ্জামান, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাহবুদ্দিন আহমেদসহ ব্যাংকের পদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গ্রাহকদের নিরবচ্ছিন্ন নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ডাচ-বাংলা ব্যাংক প্রায় তিনশ কোটি টাকা ব্যয়ে ফোর টায়ার এ ডাটা সেন্টার তৈরি করে।

প্রিয় প্রযুক্তি/শান্ত