পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারি। ছবি: সংগৃহীত

জারদারির ১১ দিনের রিমান্ড

পাকিস্তানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডনের প্রতিবেদনে এমন তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১ জুন ২০১৯, ২২:৩৭ আপডেট: ১১ জুন ২০১৯, ২২:৩৭
প্রকাশিত: ১১ জুন ২০১৯, ২২:৩৭ আপডেট: ১১ জুন ২০১৯, ২২:৩৭


পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারি। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারির ১১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে ইসলামাবাদের বিশেষ আদালত।

১১ জুন, মঙ্গলবার ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরোর পক্ষ থেকে ১৪ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে আদালত ১১ দিনের শারীরিক রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পাকিস্তানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডনের প্রতিবেদনে এমন তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

২১ জুন মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। সেদিন জারদারিকে আদালতে তোলার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। সাবেক প্রেসিডেন্টকে আদালতে আনা উপলক্ষে এদিন আদালত প্রাঙ্গণসহ রাওয়ালপিন্ডিতে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়। শুধু আদালত প্রাঙ্গণেই মোতায়েন করা হয় ৫০০ স্পেশাল পুলিশ। গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতে টহল দেন স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের সদস্যরা।

এর আগে অর্থ পাচার ও ভুয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্যবহারের মামলায় সোমবার জারদারিকে গ্রেফতার করে দুর্নীতি দমন কমিশন। পাকিস্তানের বাইরে টাকা পাঠানোর জন্য ভুয়া অ্যাকাউন্ট চালু রাখার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে কমিশনের পর্যবেক্ষক সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো। এরপর তার বাড়িতে অভিযান চালায় দুর্নীতি দমন শাখার একটি দল।

পাকিস্তানি কর্মকর্তারা জানান, ভুয়া অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ১৫ কোটি রুপি অর্থ লেনদেন করেছেন আসিফ আলি জারদারি এবং তার বোন। ভুয়া অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ তছরুপসংক্রান্ত পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের একটি মামলার প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করে ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো।

আসিফ আলি জারদারি পাকিস্তানের ১৪তম রাষ্ট্রপতি ছিলেন। তিনি পাকিস্তান পিপলস পার্টির সহসভাপতি। তিনি দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর স্বামী।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী