আদালতে আসামিদের হাজির করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

রিফাত হত্যায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি ২ আসামির

স্বীকারোক্তি দেওয়া দুজন হলেন, এ মামলার এজাহারভুক্ত ১১ নম্বর আসামি অলি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত করা অভিযুক্ত তানভীর। পরে বিচারক তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১ জুলাই ২০১৯, ২১:০১ আপডেট: ০১ জুলাই ২০১৯, ২১:০১
প্রকাশিত: ০১ জুলাই ২০১৯, ২১:০১ আপডেট: ০১ জুলাই ২০১৯, ২১:০১


আদালতে আসামিদের হাজির করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বরগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে দুই অভিযুক্ত আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এ মামলায় অপর তিনজনকে পাঁচ দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত

১ জুলাই, সোমবার বিকেলে বরগুনার সিনিয়র জুডিসিয়্যাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজীর কাছে তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

স্বীকারোক্তি দেওয়া দুজন হলেন, এ মামলার এজাহারভুক্ত ১১ নম্বর আসামি অলি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত করা অভিযুক্ত তানভীর। পরে বিচারক তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

অপরদিকে এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার হয়ে তিন দিন রিমান্ড শেষে নাজমুল হাসানকে একই আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত তা নাকচ করেন।

সাগর ও সাইমুন নামের অপর দুজনকে পুলিশ পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী তাদের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) হুমায়ুন কবির সাংবাদিকদের বলেন, ‘রিফাত শরীফ হত্যা মামলার ১১ নম্বর আসামি অলি ও হত্যাকাণ্ডেরর ভিডিও ফুটেজ দেখে গ্রেফতার করা তানভীর আদালতে রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেয়ার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে।’

এ ছাড়াও এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করা সাগর, সাইমুন ও নাজমুল আহসানকে পাঁচ দিনের রিমান্ড চাইলে আদালত রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন। এদের মধ্যে নাজমুল আহসান আগেও তিন দিনের রিমান্ডে ছিল।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল