বর্তমানে দেশে বিনামূল্যে তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে টিউটোরিয়াল তৈরি করে সেগুলো বিনামূল্যে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে অনেকেই কাজ করছেন। আর এই মহৎ কাজটি যারা করছেন, তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন তিতাস সরকার। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তথ্যপ্রযুক্তিতে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন খুব বেশি দিন হয়নি। বর্তমানে একটি অফশোর সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন। এর পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইন্সটিটিউটে এলসিএমসি কোর্স করছেন। তবে কাজ এবং পড়ার পাশাপাশি নতুনদের জন্য নিয়মিতই তৈরি করছেন টিউটোরিয়াল। 

তিতাস সরকারের বিভিন্ন কোর্সের মধ্যে আছে সিসিএনে, মাইক্রোটিক, উইন্ডোজ সার্ভার, লিনাক্স, ভার্চুয়ালাইজেশন প্রভৃতি। তবে সহজে শেখার জন্য সবগুলো টিউটোরিয়ালই বাংলা ভাষায় তৈরি করা হয়েছে যা নিয়মিতভাবে অনলাইনে প্রকাশ করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি মাঝে মাঝে আয়োজন করছেন বিভিন্ন কর্মশালার যেখানে বিনামূল্যে অংশগ্রহণের সুযোগ থাকে। 

যেভাবে শুরুটা হলো

শুরুটা করেছিলেন ২০০৯ এর দিকে। পড়াশোনা আর সাথে সাথে কিছু প্রফেশনাল কোর্স করেন তিনি। যে কোর্সগুলো আইটিতে ক্যারিয়ার গড়তে খুবই সহায়ক। তিনি যখন এই কোর্সগুলো শুরু করেন তখন আরও ভালোভাবে জানার জন্য অনলাইনে সাথে সাথে বিভিন্ন লাইব্রেরীতেও ঢুঁ মারতেন। তবে পরিতাপের বিষয় হলো কোথাও প্রফেশনাল কোর্সগুলোর মনের মতো ভাল বাংলায় কনটেন্ট খুঁজে পাননি তিনি যা তাকে হতাশ করেছিল। 

"আমার তখন এটা ভেবে খারাপ লেগেছিল যে তথ্য প্রযুক্তি খাতে অনেকেই ভালো অবস্থানে আছেন। তারা চাইলেই কিছু ভিডিও টিউটোরিয়াল তৈরি করে নতুনদের শেখার সুযোগ করে দিতে পারেন।", জানান তিনি। তবে পেশাগত ব্যস্ততার জন্য হয়তো অনেক সময় এটি করা সম্ভব হয় না, আর এজন্যই তিনি নিজেই কাজটি করতে চাইলেন। 

এখান থেকেই শুরু। পরবর্তীতে বিভিন্ন প্রফেশনাল কোর্স নিয়ে টিকটিউনস, সামহোয়্যার ইন ব্লগ, প্রথমআলো ব্লগ ইত্যাদি যায়গায় লেখালেখি শুরু করেন তিনি। এরই মধ্যে একদিন শিক্ষক.কম এর রাগিব হাসানের সাথে তার ই-মেইলে যোগাযোগ হয়। পরবর্তীতে রাগিব হাসানের পরামর্শে শিক্ষক.কমে লেখাগুলো প্রকাশ করতে শুরু করেন তিতাস। 

তবে এর পাশাপাশি তিনি নিজের একটি স্বতন্ত্র ওয়েবসাইট তৈরির পরিকল্পনা করেন যেখানে কোর্স আকারে পাওয়া যাবে সবগুলো ভিডিও টিউটোরিয়াল এবং কোর্স শেষে মিলবে সার্টিফিকেট। আর এই পরিকল্পনাকেই বাস্তবে রূপ দিতে তিনি তৈরি করেন Tsoft IT।  

বতর্মান অবস্থা 

বর্তমানে উইন্ডোজ ১০ এবং ক্লাউড কম্পিউটিং নিয়ে টিউটোরিয়াল তৈরি করছেন তিতাস। অনলাইনের পাশাপাশি শুক্র ও শনিবার আইটিতে ক্যারিয়ার করতে আগ্রহীদের নিয়ে সেমিনার আয়োজন করে এই কোর্সগুলো নিয়ে আলোচনা করে থাকেন তিনি। 

ভবিষ্যত পরিকল্পনা 

অনলাইনে কোর্স শেষ হলে সেখানেই পরীক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থা থাকবে। আর পরীক্ষায় কৃতকার্য হলে পাওয়া যাবে সার্টিফিকেট। সামনের দিকে এই ব্যবস্থা চালু করা হবে বলে জানান তিতাস সরকার। 

নতুনদের জন্য পরামর্শ 

নতুনদের উদ্দেশ্যে তিতাস সরকার বলেন, "শুধু জিপিএ ৫ পেলেই হবে না। এর পাশাপাশি কিছু শিখতে হবে এবং নতুন কিছু করতে হবে।" এছাড়া অর্জিত জ্ঞান অন্যের মাঝে ছড়িয়ে দিতেও তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।