Dhaka, Fri, 27 Mar 2015, 5:40 pm | লগ-ইন করুন | নিবন্ধন করুন   অন্যান্য সাইট: | ইসলাম | টেক | English News

প্রেম-সঙ্কটে ভুগছিলেন বিধ্বস্ত বিমানের কো-পাইলট

কো-পাইলট অন্দ্রেজ লুবিটজ জার্মানউইং বিমানটি ইচ্ছাকৃত ধ্বংস করেছেন, এটা এখন সবারই জানা। কিন্তু কেন তিনি এমন বিধ্বংসী সিদ্ধান্ত নিলেন, যার বলি হলো ১৫০ জন মানুষ? এ প্রশ্নে উত্তর খোঁজা শুরু করেছে পুলিশ।

আরো খবর: ভিডিওতে দেখুন ককপিটের বন্ধ দরজা খোলার উপায় কি ll একক পাইলটের হাতে আর কখনোই থাকবে না ককপিট ll জার্মানউইং বিমানটি ইচ্ছাকৃত ধ্বংস করেছেন কো-পাইলট ll জার্মানউইং বিমানটির ককপিটে একজন পাইলট ছিলেন! ll শেষমুহূর্তে জরুরি বিপদ সঙ্কেত পাঠাননি পাইলট ll কে এই কো-পাইলট আন্দ্রেজ লুবিটজ? ll ‘কো-পাইলট ছিলেন মানসিকভাবে অসুস্থ’ ll কভার করা হলো না ফুটবল ম্যাচ ll পাইলট যখন ঘাতক, এবারই প্রথম নয়

দল ছাঁটছে আইসিসি
4 hours 13 min ago | 858 views
অভিভূত নাসির
7 hours 13 min ago | 367 views

লাঙ্গলবন্দে ব্রহ্মপুত্র নদে অষ্টমী স্নানে পদদলিত হয়ে নিহত ১০ (ভিডিও)

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার লাঙ্গলবন্দে ব্রহ্মপুত্র নদে হিন্দুদের অষ্টমী পুণ্য স্নানে পদদলিত হয়ে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন।

অবসরের পথে ধোনি?

5 hours 28 min ago | 418 views

হেঁটেই থাকুন ফিট

7 hours 15 min ago | 595 views

মতামত/ব্লগ

বাদশাহ-মাশাফি এবং রাতের অস্টিন

‘মাশরাফি ইস আ বর্ন লিডার, বর্ন ফাইটার। তুমি কল্পনা করতে পারো, একজন উন্ডেড সোলাজার একটা পুরো সেনাবাহিনীর নেতৃত্ব দিচ্ছে যুদ্ধে! তাও আমার সামনে দাড়িয়ে! হি হ্যাস সেভেন বুলেটস ইন হিজ দু লেগ। কী অবিশ্বাস্য।’

বাংলাদেশীদের কল্যাণই যাঁদের ধ্যান-জ্ঞান-সাধনা

মেধা-যোগ্যতা সাহস-সামর্থ আন্তরিকতা-উদারতা সর্বোপরি ইষ্পাত কঠিন মনোবল আর দেশপ্রেমকে কাজে লাগিয়ে দূর প্রবাসে যাঁরা নিজেদের ধ্যান-জ্ঞান-সাধনার সবটাই মেলে ধরেছেন খেটে খাওয়া বাংলাদেশীদের কল্যাণে, তাঁরা নিঃসন্দেহে বাংলাদেশের গর্বের ধন, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান।

স্বাধীনতা আমাদের কী দিয়েছে?

তাসলিমা নাসরিন: দেশ স্বাধীন হওয়ার পর আমরা হাড়ে হাড়ে টের পাই আমরা যা পাবো বলে ভেবেছিলাম, তার প্রায় কিছুই আমাদের পাওয়া হয়নি। আমার দাদাকে খামোকা রক্ষী বাহিনী ধরে নিয়ে পেটালো। এক ঘুষখোর ম্যাজিস্ট্রেট আমার বাবাকে জেলে ভরলো।

খেলা কেবল খেলা হলে তাদের চোখে জল কেনো

ক্রিকেট আর ফুটবল যদি শুধুমাত্র একটা খেলাই হবে তবে মাশরাফি-মুশফিক ভিলিয়ারস-মরকেলরা কাঁদে কেনো!! কিংবা মেসি-নেইমার কাদার জন্য মুখ ঢাকেন কেনো! ম্যারাডোনা কেনো চুপিচুপি চোখের পানি মুছেন!

দুরন্ত কিশোরীর মতই চঞ্চল থাকে জলের ধারা

ভেতরে প্রায় মাইলখানে পথ পাড়ি দিয়ে নেমে আসা ঝরণাটার নাম শৈল প্রপাত। এখানকার একটা বৈশিষ্ট্য হলো ১২ মাস পানি মিলে। ফারুক পাড়া ও এর আশপাশের মানুষ এখানে জড়ো হন। তখনো আমাদের নাফাখুম যাওয়া হয়নি- যাওয়া হয়নি বলতে সাহসে কুলায়নি। তাই শৈল প্রপাতেই বসে কাটাতাম বিকাল- দুপুর কিংবা সকাল।

তৃতীয় কলাম

প্রিয় উত্তর