মতামত

দয়া করে বলির পাঠা খুঁজবেন না

দেবব্রত মুখোপাধ্যায়
যেহেতু বাংলাদেশ সোনালী একটা সময় কাটাচ্ছিল বা কাটাচ্ছে, তাই এমন একটা হাইপ তৈরী হয়েছে যে, বাংলাদেশের কাছে দক্ষিণ আফ্রিকা বা অস্ট্রেলিয়া, কেউই ব্যাপার না। এই হাইপ সংক্রান্ত বাসনা এবং নিজেদের ক্ষমতা সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা খেলোয়াড়দের এক ধরণের জড়তায় আক্রান্ত করেছে।

‘ছক্কা’ মারতে গিয়ে ‘বোল্ড আউট’ হলেন শিক্ষাসচিব!

তানজিল রিমন: ভদ্রলোক লুঙ্গি ও শার্ট খুলে পুটলি করে হাতের ওপরে নিয়ে নদীর পানিতে এগিয়ে যাচ্ছেন। এই সময় খাবার মনে করে এক কাক ওষুধে ছোঁ মারতে গেলে অসতর্কতায় লুঙ্গি ও শার্ট পড়ে যায় পানিতে! যদিও ওষুধ তিনি বাঁচাতে পেরেছেন সামান্য। এই অবস্থায় উলঙ্গ শরীরে গলা পরিমাণ পানিতে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। পানি থেকে উঠতে পারছেন না।

আমরা সবচেয়ে শান্তিপ্রিয় দেশ হবো

জায়াদুল আহসান পিন্টু: আমাদের শক্তি তারুন্য। আর তারুণ্যের শক্তিই বাংলাদেশের সম্ভাবনা। গণজাগরণ মঞ্চ সেটি দেখিয়েছে। তারুণ্য সব ভাসিয়ে নিয়ে যেতে পারে। কোন বাঁধাই আর বাঁধা হয়ে দাড়াবে না। আমরাতো যুদ্ধ করে এদেশের মানচিত্র এঁকেছি। কয়টা দেশ তা পেরেছে?

দেশের স্বপ্নে বিশ্ববিদ্যালয়, রাষ্ট্রনায়ক বঙ্গবন্ধু ও অষ্টম বেতন স্কেল

ফিদা হাসান: দুর্ভাগা এই জাতি, স্বাধীনতার ৪৪ বছর পরেও মনে হচ্ছে একজন স্বপ্নদৃষ্টা অভিভাবকের অভাবে আমরা পথ হারা, তাই নিজের দেশ ছেড়ে উত্তাল সমুদ্রে ডিঙ্গি নৌকা করে সেই মাহাথিরের দেশে যেতে প্রান দেই, কিন্তু আমাদের জীবন এমন না হলেও পারতো, এক শেখ মুজিব কিন্তু ৪৪ বছর আগে সেই স্বপ্নই দেখেছিলেন যা মাহাথির তার দেশে করেছিলেন বাস্তবায়ন।

রাজনীতি ও বাংলাদেশ

সারা বিশ্ব